এক বছরের মধ্যে রাজ্যে তথ্য প্রযুক্তি ক্ষেত্রে নয়া ৫০ হাজার কর্মসংস্থান, দাবি অমিত মিত্রর

রাজ্যের তথ্য প্রযুক্তির ক্ষেত্রে এক বছরের মধ্যে পঞ্চাশ হাজার নতুন চাকরি হবে ।  দাবি অমিত মিত্রের। শুক্রবার ন্যাসকমের এক অনুষ্ঠানে রাজ্যের অর্থমন্ত্রী বলেন, উইপ্রো,কগনিজেন্ট, টিসিএসের মতো বড়সড় তথ্য প্রযুক্তি সংস্থা তাদের ব্যবসার প্রসার ঘটাচ্ছে এরাজ্যে।তথ্য প্রযুক্তি ক্ষেত্রে কয়েক বছরের খরা কাটিয়ে ঘুরে দাঁড়াচ্ছে ভারত। যার প্রভাব পড়ছে এরাজ্যেও। কয়েক বছর ধরেই সল্টলেকের সেক্টর  ফাইভে একের পর এক ছোটো সংস্থা বন্ধ হয়ে গেছে। বড় সংস্থাগুলিও তাদের প্রসার ঘটায় নি। এরাজ্যে বিনিয়োগ করবে বলেও পিছিয়ে গেছে টিসিএস, উইপ্রোর মতো তথ্য প্রযুক্তি সংস্থা। তবে, রাজ্যের শিল্প তথা তথ্য প্রযুক্তি মন্ত্রী অমিত মিত্রের দাবি, পরিস্থিতির অনেকটাই বদল হয়েছে। উইপ্রো, কগনিজেন্ট, টিসিএসের মতো সংস্থা তাদের ব্যবসার সম্প্রসারণ করছে এরাজ্যে।

Updated By: Jul 3, 2015, 06:43 PM IST
এক বছরের মধ্যে রাজ্যে তথ্য প্রযুক্তি ক্ষেত্রে নয়া ৫০ হাজার কর্মসংস্থান, দাবি অমিত মিত্রর

ব্যুরো: রাজ্যের তথ্য প্রযুক্তির ক্ষেত্রে এক বছরের মধ্যে পঞ্চাশ হাজার নতুন চাকরি হবে ।  দাবি অমিত মিত্রের। শুক্রবার ন্যাসকমের এক অনুষ্ঠানে রাজ্যের অর্থমন্ত্রী বলেন, উইপ্রো,কগনিজেন্ট, টিসিএসের মতো বড়সড় তথ্য প্রযুক্তি সংস্থা তাদের ব্যবসার প্রসার ঘটাচ্ছে এরাজ্যে।তথ্য প্রযুক্তি ক্ষেত্রে কয়েক বছরের খরা কাটিয়ে ঘুরে দাঁড়াচ্ছে ভারত। যার প্রভাব পড়ছে এরাজ্যেও। কয়েক বছর ধরেই সল্টলেকের সেক্টর  ফাইভে একের পর এক ছোটো সংস্থা বন্ধ হয়ে গেছে। বড় সংস্থাগুলিও তাদের প্রসার ঘটায় নি। এরাজ্যে বিনিয়োগ করবে বলেও পিছিয়ে গেছে টিসিএস, উইপ্রোর মতো তথ্য প্রযুক্তি সংস্থা। তবে, রাজ্যের শিল্প তথা তথ্য প্রযুক্তি মন্ত্রী অমিত মিত্রের দাবি, পরিস্থিতির অনেকটাই বদল হয়েছে। উইপ্রো, কগনিজেন্ট, টিসিএসের মতো সংস্থা তাদের ব্যবসার সম্প্রসারণ করছে এরাজ্যে।

এক বছরের মধ্যে উইপ্রো ২৪০০ নতুন কর্মী নিয়োগ করবে। কগনিজেন্ট ৫০০০ নতুন কর্মী নিয়োগ করবে। টিসিএস ২০,০০০নতুন কর্মী নিয়োগ করবে।

অমিতবাবুর দাবি,রাজ্যে পনেরোটি নতুন আইটি পার্কে কুড়ি হাজার কর্ম সংস্থান হবে। এছাড়াও কেন্দ্রীয় সরকার এরাজ্যে তৈরি করছে সফট  ওয়্যার টেকনোলজি পার্ক। যেখানে পাঁচ হাজার নতুন কর্মসংস্থান হবে। ন্যাসকমের সর্বভারতীয় সভাপতি আর চন্দ্রশেখরের দাবি, কয়েক বছরের তুলনায় তথ্য প্রযুক্তি ক্ষেত্রে এবছর সাফল্য বেড়েছে। ভারত এই মুহুর্তে সফটওয়্যার রফতানিতে বিশ্বে চতুর্থ স্থানে থাকলেও আগামী বছর দ্বিতীয় স্থানে উঠে আসবে। অমিত মিত্রের দাবি, এরাজ্য থেকেও রফতানি বাড়ছে  উল্লেখযোগ্য ভাবে।

তবে তথ্য প্রযুক্তি ক্ষেত্রে রাজ্য যতই সাফল্য দাবি করুক. দেশের প্রথম সেন্টার অফ এক্সেলেন্স তৈরির জন্য কিন্তু সেই বেঙ্গালুরুকেই বেছে নিয়েছে ন্যাসকম।