অক্সিজেনের অভাবে রোগীর মৃত্যু নয়, বিদ্যাসাগর কাণ্ডে বিবৃতি স্বাস্থ্য দফতরের

স্বাস্থ্য় দফতরের দাবি, হাসপাতালে ভরতির সঙ্গে সঙ্গে রোগীকে অক্সিজেন, ওষুধ দেওয়া হয়।

Updated By: May 11, 2021, 07:13 PM IST
অক্সিজেনের অভাবে রোগীর মৃত্যু নয়, বিদ্যাসাগর কাণ্ডে বিবৃতি স্বাস্থ্য দফতরের

নিজস্ব প্রতিবেদন: বেহালার বিদ্য়াসাগর স্টেট জেনারেল হাসপাতালে অক্সিজেনের অভাবে রোগী মৃত্যুর অভিযোগ ওড়াল স্বাস্থ্য দফতর। বিবৃতি দিয়ে স্বাস্থ্য দফতর জানাল, অক্সিজেনের অভাবে যমুনা নাথ নামের ওই রোগীর মৃত্য়ু হয়নি। মৃতার পরিবারের তরফে যে অভিযোগ করা হয়েছে, তা সঠিক নয়। 

আরও পড়ুন: দূষণ কমাতে বৈদ্যুতিক যান, নতুন অটো রুট চালু, দায়িত্ব নিয়েই ঘোষণা ফিরহাদ হাকিমের

জানা গিয়েছে, যমুনা নাথ, বয়স ৫০। পর্ণশ্রী থানার বড়াগাছির বাসিন্দা। সোমবার সন্ধেয় প্রবল শ্বাসকষ্টের সমস্য়া নিয়ে বিদ্য়াসাগর স্টেট জেনারেল হাসপাতালে ভরতি হন। মঙ্গলবার সকালে তাঁর মৃত্য়ু হয়। মৃতার পরিবারের অভিযোগ, রোগীকে অক্সিজেন না দিয়ে ফেলে রাখা হয়। অক্সিজেন না পেয়ে রোগীর অবস্থা ক্রমশ খারাপ হতে থাকে। বারবার বলা সত্ত্বেও চিকিৎসক ও নার্সদের তরফে কোনও সহযোগিতা মেলেনি। উলটে তাঁদের সঙ্গেই  দুর্ব্যবহার করা হয়। মঙ্গলবার মহিলা মারা গেলে ক্ষোভে ফেটে পড়েন পরিজনরা। জরুরি বিভাগে ঢুকে বিক্ষোভ দেখান তাঁরা।

এই খবর ছড়িয়ে পড়তেই চাঞ্চল্য় শুরু হয়। পরে স্বাস্থ্য় দফতরের তরফে বিবৃতি দিয়ে পরিবারের অভিযোগ খারিজ করা হয়। স্বাস্থ্য় দফতরের দাবি, ভরতি সময় রোগীর অক্সিজেন লেভের ৮৫ শতাংশে ছিল। হাসপাতালে ভরতির সঙ্গে সঙ্গে তাঁকে অক্সিজেন এবং ওষুধ দেওয়া হয়। মৃতার বাড়ির লোকের অভিযোগ ভ্রান্ত। 

আরও পড়ুন: অতিমারিতে বেডের জন্য় হাহাকার, শহরের বেসরকারি হাসপাতালে জালিয়াতির অভিযোগ

জানা গিয়েছে, বিদ্য়াসাগর স্টেট জেনারেল হাসপাতালের SARI ওয়ার্ডে ৩৪টি বেড রয়েছে। রোগীর চাপ বাড়ায় অতিরিক্ত ১০টি বেডের ব্য়বস্থা করা হয়েছে। হাসপাতালে রয়েছে ১০টি অক্সিজেন কনসেনট্রেটর এবং ৬০টি বি টাইপ অক্সিজেন সিলিন্ডার।