close

News WrapGet Handpicked Stories from our editors directly to your mailbox

রাজীব কুমারকে হত্যাও করা হতে পারে, আশঙ্কা সোমেন মিত্রের

রাজীব কুমার-সিবিআই দড়ি টানাটানির মধ্যেই চাঞ্চল্যকর আশঙ্কা প্রকাশ করলেন প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি সোমেন মিত্র। তাঁর আশঙ্কা, হত্যাও করা হতে পারে রাজীব কুমারকে।

Moumita Chakrabortty | Updated: Sep 21, 2019, 01:12 PM IST
রাজীব কুমারকে হত্যাও করা হতে পারে, আশঙ্কা সোমেন মিত্রের

নিজস্ব প্রতিবেদন: রাজীব কুমার-সিবিআই দড়ি টানাটানির মধ্যেই চাঞ্চল্যকর আশঙ্কা প্রকাশ করলেন প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি সোমেন মিত্র। তাঁর আশঙ্কা, হত্যাও করা হতে পারে রাজীব কুমারকে।

আরও পড়ুন-সাতসকালে দক্ষিণদাঁড়িতে মর্মান্তিক দুর্ঘটনা, মধ্যবয়স্ক ব্যক্তিকে পিষে দিল কৃষ্ণনগর লোকাল

সিউড়িতে দলের সভায় রয়েছেন সোমেন মিত্র। সেখান থেকে জি ২৪ ঘণ্টাকে তিনি বলেন, ২০১৩ সালে সারদা কেলেঙ্কারি প্রকাশ্যে আসলে তার তদন্তের জন্য গঠন করা হয় স্পেশাল ইনভেস্টিগেশন টিম। সেই টিমের মাথা করা হয় বিধাননগর কমিশনারেটের তত্কালীন প্রধান রাজীব কুমারকে।

উল্লেখ্য, ২০১৩ সালের এপ্রিল মাসে সারদা চিটফান্ডের কর্ণধার সুদীপ্ত সেনকে জম্মু ও কাশ্মীরের সোনমার্গ থেকে গ্রেফতার করে নিয়ে আসে রাজীব কুমারের টিম। কিন্তু ২০১৪ সালে সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশে সারদার তদন্তভার চলে যায় সিবিআইয়ের হাতে। আদালতের নির্দেশে সারদার সব নথি সিবিআইয়ের হাতে তুলে দিতে হয় রাজীব কুমারকে।

আরও পড়ুন-দেবযানীকে জেরার পর রাজীব কুমারের আপ্ত সহায়ককে ডেকে পাঠাল সিবিআই

এদিকে, সারদার নথি সিবিআইয়ের হাতে তুলে দিলেও বহু গুরুত্বপূর্ণ নথি তিনি নষ্ট করে ফেলেছেন বলে অভিযোগ ওঠে রাজীব কুমারের বিরুদ্ধে। সোমেন মিত্র বলেন, ‘সারদা মামলায় রাজ্য সরকারের বহু প্রভাশালী নেতা জেল খেটেছেন। রাজীব কুমারকে বাঁচাতে ধর্মতলা ধরনায় বসেছিলেন খোদ মুখ্যমন্ত্রী। তিনি ধরা পড়লে দলের অনেক রথি মহারথির রাজনৈতিক জীবনই শেষ হয়ে যাবে এবং সরকারের অস্তিত্ব নিয়েই প্রশ্ন দেখা দেবে। এখন সিবিআই যেভাবে এগোচ্ছে তাতে ওকে মেরে ফেলা ছাড়া আর কোনও রাস্তা নেই। সেই জন্যই আমাদের ভয় হচ্ছে, ওকে মেরে না দেয়।’

ঠিক কার দিকে ইঙ্গিত করছেন তিনি? এনিয়ে কিছু বলতে অস্বীকার করেন সোমেন মিত্র।