কী করে মাঝ গঙ্গায তলিয়ে গেল রৌণক সাহা?

কী করে মাঝ গঙ্গায তলিয়ে গেল রৌণক সাহা?এটাই সব থেকে বড় প্রশ্ন তদন্তকারীদের কাছে। গতকাল রাতে রৌনকের চার বন্ধুকে জিজ্ঞাসাবাদ করে পুলিস। মেডিক্যাল পরীক্ষায় দেখা গেছে রৌনকের চার বন্ধুই মদ্যপান করেছিল। তাদের দাবি, মদ খেয়েছিল রৌনকও।  নৌকায় উঠলেও তাদের কেউই সাঁতার জানত না। ফলে রৌনক তলিয়ে যাওয়ার সময় তাঁরা কেউই তাঁকে উদ্ধার করতে পারেনি। মাঝিকে ডাকাডাকি করলেও সাহায্যের হাত বাড়ায়নি সেও। মাঝিকেও জিজ্ঞাসাবাদ করেছে পুলিস। মাঝির দাবি, রৌনকের বন্ধুদের একজনই তাকে গঙ্গায় ঠেলে দেয়।

Updated By: Nov 25, 2016, 08:31 AM IST
 কী করে মাঝ গঙ্গায তলিয়ে গেল রৌণক সাহা?

ওয়েব ডেস্ক: কী করে মাঝ গঙ্গায তলিয়ে গেল রৌণক সাহা?এটাই সব থেকে বড় প্রশ্ন তদন্তকারীদের কাছে। গতকাল রাতে রৌনকের চার বন্ধুকে জিজ্ঞাসাবাদ করে পুলিস। মেডিক্যাল পরীক্ষায় দেখা গেছে রৌনকের চার বন্ধুই মদ্যপান করেছিল। তাদের দাবি, মদ খেয়েছিল রৌনকও।  নৌকায় উঠলেও তাদের কেউই সাঁতার জানত না। ফলে রৌনক তলিয়ে যাওয়ার সময় তাঁরা কেউই তাঁকে উদ্ধার করতে পারেনি। মাঝিকে ডাকাডাকি করলেও সাহায্যের হাত বাড়ায়নি সেও। মাঝিকেও জিজ্ঞাসাবাদ করেছে পুলিস। মাঝির দাবি, রৌনকের বন্ধুদের একজনই তাকে গঙ্গায় ঠেলে দেয়।

আরও পড়ুন নেশার টাকা না দেওয়ায় বাবাকে খুন করল ছেলে!

সেও নাকি সাঁতার জানত না। তাই রৌনককে উদ্ধার করতে পারেনি। বোটের লাইসেন্স থাকলেও লাইফ জ্যাকেট ছিল না। তিনজনের বদলে মাত্র একজন মাঝি ছিল। রাত পর্যন্ত রৌনকের চার বন্ধু ও মাঝিকে জিজ্ঞাসাবাদ করে এর বাইরে আর কোনও সূত্রই পায়নি সাউথ পোর্ট থানার পুলিস। ফলে রৌনকের বন্ধুদের ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। পুলিস সূত্রে খবর, তদন্তের প্রয়োজনে পরে তাদের ডাকা হতে পারে।

আরও পড়ুন  এভাবেই শিশু পাচার চক্রের জাল ছড়িয়েছে রাজ্যে!