মুখ্যমন্ত্রী পদপ্রার্থীর নাম 'ঘোষণা', BJP-র বৈঠকে তিরস্কারের মুখে Soumitra Khan

'ভবিষ্যতে এমন মন্তব্য করলে পদক্ষেপ করা হবে।'

Updated By: Jan 17, 2021, 11:32 PM IST
মুখ্যমন্ত্রী পদপ্রার্থীর নাম 'ঘোষণা', BJP-র বৈঠকে তিরস্কারের মুখে Soumitra Khan

নিজস্ব প্রতিবেদন: দলের অনুমতি না নিয়ে কেন মন্তব্য? রাজ্য বিজেপির বিশেষ বৈঠকে সাংসদ সৌমিত্র খাঁকে (Soumitra khan) রীতিমতো তিরস্কার করলেন দলের কেন্দ্রীয় নেতারা। হুঁশিয়ারি দেওয়া হল, ভবিষ্যতে এমন মন্তব্য করলে পদক্ষেপ করা হবে। 'যা বলার কৈলাসজী, মুকুলজী বলবেন', Zee ২৪ ঘণ্টার কাছে মুখ খুলতে রাজি নন সৌমিত্র।

ঘটনাটি ঠিক কী? একুশের নির্বাচনে বাংলার জয়ের লক্ষ্যে ঝাঁপিয়েছে বিজেপি (BJP)। কিন্তু দলের মুখ্যমন্ত্রী পদপ্রার্থী কে? তা নিয়ে রাজনৈতিক মহলে জল্পনা শেষ নেই। যদিও অমিত শাহ (Amit Shah), জেপি নাড্ডাদের (JP Nadda) মতো কেন্দ্রীয় নেতাদের স্পষ্ট নির্দেশ, মুখ্য়মন্ত্রী পদপ্রার্থী নিয়ে দলের অন্দরে আলোচনার প্রয়োজন নেই। কারণ, কোনও রাজ্যে যখন প্রথমবার ক্ষমতা আসার জন্য বিজেপি (BJP) ভোটে লড়ে, তখন মুখ্যমন্ত্রী পদপ্রার্থী হিসেবে কাউকে তুলে ধরা হয় না। এটাই দলের রীতি। সেই হিসেবে এবার বাংলায় কাউকে মুখ্য়মন্ত্রী পদপ্রার্থী হিসেবে নাও তুলে ধরা হতে পারে। সূত্রের খবর তেমনই। বস্তত, কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের নির্দেশের পর প্রকাশ্য়ে আর এ বিষয়ে আর কথাও বলছেন না দিলীপ ঘোষ (Dilip Ghosh)-সহ বঙ্গ বিজেপি প্রথমসারির নেতারা। কিন্তু ব্য়তিক্রম ঘটল সাংসদ সৌমিত্র খাঁ-র কেন্দ্রে।

গত সোমবার পশ্চিম মেদিনীপুরের দাঁতনের দেউলি গ্রামে সমাবেশ ছিল বিজেপির যুব মোর্চার। সেখানেই বক্তব্য রাখতে গিয়ে সৌমিত্র খাঁ (Soumitra Khan) বলেন, "শুভেন্দুদার নেতৃত্বে তৃণমূল ভাঙবে। দিলীপ ঘোষ (Dilip Ghosh) বিজেপির মুখ্যমন্ত্রী (Chief Minister) হবেন। কলকাতার অনেক তৃণমূল নেতা বলছেন, দিলীপ ঘোষ কী জানেন? আমি বলছি, দিলীপ ঘোষ একজন অরিজিনাল নেতা। দিলীপ ঘোষ সংসার জীবন করেননি। আমার দৃঢ় বিশ্বাস দিলীপ ঘোষ একদিন মুখ্যমন্ত্রী হবেন। দিলীপ ঘোষ-ই একদিন রাজ্য চালাবে। আর শুভেন্দুদার নেতৃত্বে পুর তৃণমূল কংগ্রেস ভেঙে যাবে।" এই মন্তব্য়ের জন্য়ই বিজেপির বৈঠকে তিরস্কৃত হলেন দলের এই তরুণ  সাংসদ।

উল্লেখ্য, একুশের বিধানসভা ভোটের রণকৌশল ঠিক করতে এদিন কলকাতা বিশেষ বৈঠক হয় বঙ্গ বিজেপি কোর কমিটির। বৈঠকে যোগ দেন দিলীপ ঘোষ (Dilip Ghosh), কৈলাস বিজয়বর্গীয় (Kailash Vijayvargiya) ও রাজ্যের দায়িত্বপ্রাপ্ত কেন্দ্রীয় নেতারা। ছিলেন দলের বিভিন্ন শাখার সংগঠনের প্রতিনিধিরাও। এই বৈঠকে 'পরিবর্তন যাত্রা'  কর্মসূচি-সহ ৬ দফা সিদ্ধান্ত নিয়েছে বঙ্গ বিজেপি নেতৃত্ব।