Uber, Zomato-র পর এবার Swiggy; লকডাউনে কাজ হারাতে চলেছেন হাজারেরও বেশি কর্মী!

সংস্থা জানিয়েছে, ছাঁটাইয়ের তালিকায় থাকা কর্মীদের আগামী তিন মাসের বেতন দেওয়া হবে।

Edited By: সুদীপ দে | Updated By: May 18, 2020, 05:19 PM IST
Uber, Zomato-র পর এবার Swiggy; লকডাউনে কাজ হারাতে চলেছেন হাজারেরও বেশি কর্মী!

নিজস্ব প্রতিবেদন: লকডাউনে Uber, Zomato-র পর এ বার কাজ হারাতে চলেছেন হাজারেরও বেশি Swiggy কর্মী। লকডাউন পর্বে দীর্ঘদিন ধরেই বন্ধ দেশের প্রায় সব হোটেল, রেস্তোরাঁ। ফলে খাবার ডেলিভারির অর্ডার এখন প্রায় নেই বললেই চলে। এই পরিস্থিতিতে ব্যায় সঙ্কোচনের জন্য কর্মী ছাঁটাইয়ের পথেই হাঁটতে হল ফুড ডেলিভারি চেন সংস্থা Swiggy-কে।

২০১৪ সালে নিজেদের ফুড ডেলিভারির ব্যবসা শুরু করেছিল Swiggy। দেশের প্রায় ১ লক্ষ ৬০ হাজার রেস্তরাঁর সঙ্গে যুক্ত তাদের ডেলিভারি পরিষেবা। এই প্রথম এমন মারাত্মক বিপর্যয়ের সম্মুখীন হল সংস্থা।

সোমবারই সংস্থার পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, আগামী কয়েক দিনের মধ্যেই হাজারেরও বেশি কর্মীকে ছাঁটাই করা হবে। এ প্রসঙ্গে সংস্থার কর্ণধার শ্রীহর্ষ মেজতি জানান, অত্যন্ত দুঃখজনক হলেও সংস্থা কর্মী সংখ্যা কমানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে। আগামী কয়েক দিনের মধ্যে বিভিন্ন শহর এবং সংস্থার মূল কার্যালয় মিলিয়ে মোট ১ হাজার ১০০ জন কর্মীকে বরখাস্ত করতে হচ্ছে। সংস্থা জানিয়েছে, ছাঁটাইয়ের তালিকায় থাকা কর্মীদের আগামী তিন মাসের বেতন দেওয়া হবে। সেই সঙ্গে বছরভর সংস্থার সঙ্গে থাকার জন্য এক মাসের অতিরিক্ত বেতনও দেওয়া হবে তাঁদের।

আরও পড়ুন: লকডাউনের জেরে ১৩% কর্মী ছাঁটাই, বাকিদের ৫০% বেতন কমানোর সিদ্ধান্ত নিল এই সংস্থা!

ফুড ডেলিভারি ছাড়াও আরও বিভিন্ন ধরনের ব্যবসার সঙ্গে যুক্ত Swiggy। সংস্থার পক্ষ থেকে এ দিন জানানো হয়েছে, আগামী দেড় বছর যে ব্যবসাগুলি বেশি ঝুঁকিপূর্ণ, সেগুলি বন্ধ করে দেওয়া হতে পারে। যেমন, ‘ক্লাউড কিচেন’-এর ব্যবসা সাময়িক বা প্রয়োজনে স্থায়ী ভাবেই বন্ধ করে দেওয়া হতে পারে।