প্র্যাঙ্ক ভিডিয়ো বানাতে গিয়ে বেঙ্গালুরুতে গ্রেফতার ৭ ‘ভূত’!

পুলিসের জালে ধরা পড়ল সাত সাতজন ‘ভূত’! প্র্যাঙ্ক ভিডিয়ো বানানোর অপরাধে সাত ভূতকে গ্রেফতারও করেছে পুলিস।

Updated By: Nov 12, 2019, 09:18 AM IST
প্র্যাঙ্ক ভিডিয়ো বানাতে গিয়ে বেঙ্গালুরুতে গ্রেফতার ৭ ‘ভূত’!
—প্রতীকী ছবি।

নিজস্ব প্রতিবেদন: বিগত কয়েক মাস ধরে এলাকায় ক্রমশ বাড়ছিল ভূতের উপদ্রব। রক্তাক্ত শরীর, গায়ে সাদা ধবধবে পোশাক, মাথা ভর্তি লম্বা রুক্ষ চুল, হাতে অস্বাভাবিক লম্বা লম্বা নখ— এলাকার ফুটপাথবাসী থেকে অন্যান্য বাসিন্দারা মাঝে মধ্যেই দেখা পাচ্ছিলেন তাঁদের। ভূতের উপদ্রবে অতিষ্ঠ হয়ে শেষমেশ পুলিসে পর্যন্ত অভিযোগ জানান এলাকার বাসিন্দারা। আর ক’দিনের তদন্তের পর পুলিসের জালে ধরা পড়ল সাত সাতজন ‘ভূত’! প্র্যাঙ্ক ভিডিয়ো বানানোর অপরাধে সাত ভূতকে গ্রেফতারও করেছে পুলিস।

অদ্ভুত এই ঘটনাটি ঘটেছে বেঙ্গালুরুর যশোবন্তপুরের শরিফ নগর এলাকায়। বুঝতেই পারছেন, এঁরা আসলে ‘ভূত’ নয়। দীর্ঘদিন ধরে এলাকায় ভূত সেজে প্র্যাঙ্ক ভিডিয়ো বানাচ্ছিলেন কয়েকজন যুবক। এঁদের প্রত্যেকেরই বয়স ২০ থেকে ২২-এর মধ্যে। এলাকার বাসিন্দাদের, ওই এলাকা দিয়ে যাওয়া ট্যাক্সি বা গাড়িগুলিকে ভয় দেখিয়ে তার ভিডিয়ো বানাচ্ছিল এই সাত যুবক। ‘ঘোস্ট প্র্যাঙ্ক ইন বেঙ্গালুরু’ নামের একটি ইউটিউব চ্যানেলের জন্য এই ভিডিয়োগুলি বানানো হচ্ছিল।

Prank video

আরও পড়ুন: ক্যামেরায় ধরা পড়ল মানুষের কঙ্কালসার মুখের মতো দেখতে মাছ! দেখুন ভিডিয়ো

জানা গিয়েছে, এর আগেও সোশ্যাল মিডিয়ায় দ্রুত জনপ্রিয়তা পাওয়ার লোভে এবং বিভিন্ন সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্ম থেকে উপার্জনের আশায় এই ধরনের ভিডিয়ো বানানোর চেষ্টা করা হয়েছে। সে ক্ষেত্রে পুলিসের পক্ষ থেকে এই ধরনের ভিডিয়ো বানাতে গিয়ে এলাকার বাসিন্দাদের কোনও ভাবেই উত্যক্ত করা যাবে না বলে সতর্ক করা হয়েছিল। কিন্তু তাতে কাজ না হওয়ায়, যশোবন্তপুরের শরিফ নগর এলাকার একাধিক বাসিন্দার অভিযোগের ভিত্তিতে এই তাস যুবককে গ্রেফতার করা হয়েছে।