লস্কর, হিজবুলে ১৩ জঙ্গির নিয়োগ! একটি মাদ্রাসা এখন কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থার নজরে

জানা গিয়েছে উত্তরপ্রদেশ, কেরালা, তেলেঙ্গানার বহু ছাত্র এই মাদ্রাসায় নাম লিখিয়েছিল। 

Edited By: সুমন মজুমদার | Updated By: Oct 12, 2020, 05:35 PM IST
লস্কর, হিজবুলে ১৩ জঙ্গির নিয়োগ! একটি মাদ্রাসা এখন কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থার নজরে

নিজস্ব প্রতিবেদন- ধর্মীয় শিক্ষা দেওয়ার মাদ্রাসা। কিন্তু সেখান থেকে আসলে ছাত্রদের পাঠানো হয় বিভিন্ন জঙ্গি সংগঠনে। দক্ষিণ কাশ্মীরের সোপিয়া জেলায় এমনই একটি মাদ্রাসার হদিশ পেয়েছে কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থাগুলি। জানা গিয়েছে, সাম্প্রতিককালে ওই স্কুলের ১৩ জন ছাত্র বিভিন্ন জঙ্গি সংগঠনে রিক্রুট হয়েছে। এমনকী গত বছর ফেব্রুয়ারি মাসের পুলওয়ামায় সিআরপিএফ কনভয়ে জঙ্গি হানার সঙ্গে যুক্ত জঙ্গি সাজ্জাদ ভাটও ওই মাদ্রাসার মাধ্যমেই লস্কর-ই-তৈবায় রিক্রুট হয়েছিল বলে জানিয়েছে গোয়েন্দা সংস্থা। পুলওয়ামা, কুলগাঁও, অনন্তনাগ, সেপ্রিয়া এলাকার বহু ছাত্র ওই মাদ্রাসায় পড়তে আসত। নিরাপত্তা বাহিনী জানিয়েছে, ওই মাদ্রাসায় পড়া ছাত্র এবং প্রাক্তন ছাত্রদের মধ্যে বেশিরভাগই একাধিক জঙ্গি সংগঠনে যোগ দিয়েছে। আর তাই এবার কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থাগুলির রাডারে রয়েছে এই মাদ্রাসা।

জানা গিয়েছে উত্তরপ্রদেশ, কেরালা, তেলেঙ্গানার বহু ছাত্র এই মাদ্রাসায় নাম লিখিয়েছিল। কিন্তু জম্মু-কাশ্মীরে সংবিধানের ৩৭০ ধারা লোপের পর থেকে ওই মাদ্রাসায় ছাত্র সংখ্যা শূন্যতে দাঁড়িয়েছে। এই মাদ্রাসা থেকেই ১৩ জন ছাত্র বিভিন্ন জঙ্গি সংগঠনে নাম লিখিয়েছে। হিজবুল মুজাহিদীন, লস্কর-ই-তইবার মতো সংগঠন গুলিতে এই মাদ্রাসার মাধ্যমে নিয়োগ হয়। কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থাগুলি জানতে পেরেছে, এই মাদ্রাসায় পড়তে আসা ছাত্রদের বেশিরভাগই পুলওয়ামা, সোপিয়া এলাকার। এখান থেকে সরাসরি জঙ্গি সংগঠনের নিয়োগ করা হত। কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা আরও জানতে পেরেছে, এই মাদ্রাসায় পড়তে আসা ছাত্ররা জঙ্গি সংগঠনগুলোর গ্রাউন্ড ওয়ার্কার হিসেবে কাজ করত। অর্থাৎ নাশকতার সঙ্গে যুক্ত থাকা ছাড়াও কমবয়সী ছেলেদের সংগঠনে যুক্ত করার জন্য ব্রেনওয়াশ করতে তারা।

আরও পড়ুন-  পাক সেনার কাপুরুষোচিত কাণ্ড! সাধারণ গ্রামবাসীদের মাঝরাতে ঘরবাড়ি ছেড়ে বেরোতে হল

কিছুদিন আগে বারামুলা থেকে একটি কমবয়সী ছেলে নিখোঁজ হয়ে যায়। ছুটি শেষ হওয়ার পর বাড়ি থেকে স্কুলে যাওয়ার উদ্দেশ্যে বেরিয়েছিল সে। পরে জানা যায়, লস্কর-ই-তইবা জঙ্গি সংগঠনে যোগ দিয়েছে সেই কমবয়সী ছেলেটি। তারও ব্রেনওয়াশ করে জঙ্গি সংগঠনের রিক্রুট করা হয়েছে বলে আন্দাজ করছে নিরাপত্তা বাহিনী। কিছুদিন আগে নিরাপত্তা বাহিনীর হাতে খতম হওয়া আল বদ্রু জঙ্গি সংগঠনের কমান্ডার জুবের নিগ্রু এই মাদ্রাসার ছাত্র ছিল বলে জানতে পেরেছে কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা।