মোগল, ব্রিটিশদের মতো দেশের সংস্কৃতি ধ্বংস করেছেন বামপন্থীরা, দাবি বিপ্লবের

বেফাঁস মন্তব্য করে বারংবার বিপাকে পড়তে দেখা গিয়েছে ত্রিপুরার নয়া মুখ্যমন্ত্রীকে। বিপ্লবকে যেমন বলতে শোনা যায়, মহাভারতের সময়ও ইন্টারনেটে ব্যবহার ছিল

Updated By: Dec 25, 2018, 04:33 PM IST
মোগল, ব্রিটিশদের মতো দেশের সংস্কৃতি ধ্বংস করেছেন বামপন্থীরা, দাবি বিপ্লবের
ফাইল চিত্র

নিজস্ব প্রতিবেদন: দেশের সংস্কৃতি-সভ্যতাকে ধ্বংস করেছে বামপন্থীরা। মোগল, ব্রিটিশদের সঙ্গে এক সারিতে বামপন্থীদের বসিয়ে ত্রিপুরার পূর্বতন সরকারের তীব্র সমালোচনা করলেন সে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব দেব। অখিল ভারতীয় ইতিহাস সংকলন যোজোনার সম্মেলনে ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী বলেন, এ রাজ্যের মানুষ বাম মতাদর্শ প্রত্যাখ্যান করে দেশের প্রাচীন সংস্কৃতি এবং সভ্যতার পথ অনুসরণ করছেন।

আরও পড়ুন- অটলজির জন্মদিবসে শ্রদ্ধা জানাতে বিশেষ ভিডিও শেয়ার করলেন মোদী

বেফাঁস মন্তব্য করে বারংবার বিপাকে পড়তে দেখা গিয়েছে ত্রিপুরার নয়া মুখ্যমন্ত্রীকে। বিপ্লবকে যেমন বলতে শোনা যায়, মহাভারতের সময়ও ইন্টারনেটে ব্যবহার ছিল। তেমনই তাঁর যুক্তি ছিল, পুকুরে হাঁস চড়লে জলে অক্সিজেন বৃদ্ধি পায়। বিপ্লবের এ হেন মন্তব্য রাজনৈতিক গণ্ডি ছাড়িয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় তামাসায় পরিণত হয়। কিন্তু ত্রিপুরার মুখ্যন্ত্রীর এ দিনের মন্তব্য অত্যন্ত রাজনৈতিক বলে মনে করছেন ওয়াকিবহাল মহল।

আরও পড়ুন- রাহুলের সুরেই মোদীকে তোপ সেনার, 'চৌকিদার চোর' বললেন উদ্ধব

বিপ্লব দেব অভিযোগ করেন, বামপন্থিরা শুধুমাত্র গুন্ডা তৈরি করেছে। তারা যেমন দেশের সভ্যতা এবং সংস্কৃতি ধ্বংস করেছে তেমনই সাধারণ মানুষের বাকস্বাধীনতা কেড়ে নিয়েছিল। তাঁদেরকে বিপথে চালিত করা হয়েছিল। বিপ্লব দেবের আরও দাবি, গোটা বিশ্বকে লাল চাদরে ঢাকতে ব্যর্থ হয়েছে বামপন্থীরা, কিন্তু বিজেপি দেশকে কখনও গৈরিকরণের চেষ্টা করেনি। এ দিনের অনুষ্ঠানে ইতিহাস সংক্রান্ত বেশ কিছু বই প্রকাশ করেন বিপ্লব দেব।