নির্দেশ মেনে চলুন নচেৎ ব্যবস্থা, 'কৃষক গণহত্যা' হ্যাশট্যাগে কড়া কেন্দ্র

ভুয়ো, উস্কানিমূলক টুইট ও রিটুইটের অভিযোগে ২৫০টির বেশি অ্যাকাউন্ট বন্ধ করা হয়। 

Updated By: Feb 3, 2021, 09:14 PM IST
নির্দেশ মেনে চলুন নচেৎ ব্যবস্থা, 'কৃষক গণহত্যা' হ্যাশট্যাগে কড়া কেন্দ্র

নিজস্ব প্রতিবেদন: কৃষক আন্দোলনে ব্যবহার করা হয়েছে আপত্তিকর হ্যাশট্যাগ #ModiPlanningFarmerGenocide। ওই হ্যাশট্যাগে যারা টুইট করেছে, তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য টুইটারকে নোটিস পাঠাল বৈদ্যুতিন ও তথ্যপ্রযুক্তি দফতর (Ministry of Electronics and Information Technology)। মাইক্রোব্লগিং সাইটকে কেন্দ্র জানিয়েছে, নির্দেশিকা সত্ত্বেও আপত্তিকর হ্যাশট্যাগের সঙ্গে যুক্ত টুইটার অ্যাকাউন্টগুলিকে খুলে দেওয়া হয়েছে। ব্যবস্থা না নিলে সংস্থার বিরুদ্ধে মামলা করা হবে।

প্রজাতন্ত্র দিবসে দিল্লি পুলিস ও কৃষকদের মধ্যে ধুন্ধুমার বাধে (Farmers Protest)। তারপর গত সোমবার #ModiPlanningFarmerGenocide হ্যাশট্যাগে ভুয়ো, উস্কানিমূলক টুইট ও রিটুইটের অভিযোগে ২৫০টির বেশি অ্যাকাউন্ট বন্ধ করা হয়। তার মধ্যে ছিল বাংলায় সিপিএমের পলিটব্যুরো এক নেতার অ্যাকাউন্টও। সরকারের মতে, 'সমাজে ঘৃণা, অশান্তি ও উত্তেজনা ছড়াতে পরিকল্পিতভাবে এই ধরনের হ্যাশট্যাগ ব্যবহার করা হচ্ছে। গণহত্যায় উস্কানি দেওয়া বাক্ স্বাধীনতা হতে পারে না। এটা আইন-শৃঙ্খলার জন্য বিপজ্জনক।' যদিও কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই ওই অ্যাকাউন্টগুলির উপরে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করে টুইটার।

তথ্যপ্রযুক্তি আইনের (Information Technology Act) ৬৯এ ধারায় ২৫৭টি ইউআরএল (URLs) ও ১টি হ্যাশট্যাগকে আপৎকালীন ব্লক করার নির্দেশ দেয় বৈদ্যুতিন ও তথ্যপ্রযুক্তিমন্ত্রক। সরকারি বিবৃতি অনুযায়ী, দুর্ভাগ্যজনকভাবে ওই নির্দেশিকা মেনে চলেনি টুইটার। টুইটার নিজেদের আদালত ভাবতে পারে না। উস্কানিমূলক বিষয়বস্তু জনমানসে প্রভাব ফেলতে পারে। সৃষ্টি করতে পারে উত্তেজনা।#ModiPlanningFarmerGenocide হ্যাশট্যাগ জনসাধারণকে অপরাধ করতে উস্কানি দিতে পারে। টুইটার নির্দেশ মেনে চলতে বাধ্য। তা না হলে আইনি পদক্ষেপ করা হবে।'

আরও পড়ুন- কোনও Propaganda ভারতের উন্নয়ন ঠেকাতে পারবে না: Amit Shah