মোদী সরকারের মেগা আর্থিক সমীক্ষা, তথ্য নেওয়া হবে ফুটপাথের দোকানেরও

যেভাবে জনগণনা হয়, ঠিক একই কায়দায় এই আর্থিক সমীক্ষার কাজ করা হবে। 

Updated By: Jun 5, 2019, 02:42 PM IST
মোদী সরকারের মেগা আর্থিক সমীক্ষা, তথ্য নেওয়া হবে ফুটপাথের দোকানেরও

নিজস্ব প্রতিবেদন: প্রথম দফার মাঝামাঝি নোট-বাতিল করে দেশবাসীকে চমকে দিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। দ্বিতীয় দফাতেও চমক দিতে চান প্রধানমন্ত্রী। তবে এবার শুরুতেই তিনি চমক দিতে চলেছেন।

গতবার কালো টাকার রমরমা বন্ধ করতে রাতারাতি বাতিল করে দিয়েছিলেন ৫০০ ও ১০০০ টাকার নোট। এবার বেকারত্বে রাশ টানতে মোদী পদক্ষেপের পরিকল্পনা করেছেন বলে খবর।

আরও পড়ুন: ড্যামেজ কন্ট্রোল! পাইলটের বিরুদ্ধে তোপ দেগেও ইফতারে এক ফ্রেমে গেহলট

কী পদক্ষেপ নিতে চলেছেন তিনি? সরকারি তরফে জানা গিয়েছে, মোদী এবার অর্থনৈতিক সমীক্ষা করাবেন দেশজুড়ে। সেই সমীক্ষা রিপোর্টের ভিত্তিতে তৈরি হবে দেশে বেকারের সংখ্যা ঠিক কত? আরও কত মানুষের কর্মসংস্থানের প্রয়োজন।

সেই কারণে সর্বস্তরে সমীক্ষা চালানো হবে। ঠেলাওয়ালা থেকে ফুটপাথে যাঁদের দোকান রয়েছে, তাঁদেরও এই সমীক্ষার আওতায় আনা হবে। দেখা হবে অসংগঠিত ক্ষেত্রে কত মানুষ কাজ করেন। সব মিলিয়ে ২৭ কোটি বাড়ি ও ৭ কোটি সংস্থায় সমীক্ষা করা হবে।

আরও পড়ুন: ৫ কোটি সংখ্যালঘু পড়ুয়াকে বৃত্তি দেবে কেন্দ্র, বললেন নাকভি

যেভাবে জনগণনা হয়, ঠিক একই কায়দায় এই আর্থিক সমীক্ষার কাজ করা হবে। জুনের শেষের দিকে শুরু হবে সমীক্ষার কাজ। ছ’মাসের মধ্যে রিপোর্ট তৈরি করা হবে। ১২ লক্ষ সমীক্ষক বাড়ি বাড়ি, দোকানে দোকানে গিয়ে তথ্য সংগ্রহ করবেন।

সেই তথ্য এর পর NSSO ও MSME আধিকারিকরা ওই তথ্য যাচাই করে ফাইনাল রিপোর্ট তৈরি করবেন। এই সমীক্ষার আওতা থেকে চাষবাস, প্রতিরক্ষা, সরকারি অফিস, সামাজিক সুরক্ষার পরিষেবাগুলিকে বাদ দেওয়া হয়েছে।

আরও পড়ুন: বিশ্ব পরিবেশ দিবসে মোদীর বার্তা, দেখুন ভিডিয়ো

যদিও প্রতিবছর আর্থিক সমীক্ষা সরকারি তরফে করা হয়। তাতে বছরে দেশের অর্থনৈতিক অগ্রগতি নিয়ে রিপোর্ট তৈরি করা হয়। আর বাজেট পেশের আগেরদিন সংসদে সেই রিপোর্ট পেশ করেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী।