আজ ২৫ লক্ষ চৌকিদারের সঙ্গে কথা বলবেন নরেন্দ্র মোদী

বিজেপি জানিয়েছে, সারা দেশের যে সব মানুষরা প্রচারের আলোর বাইরে থেকে কাজ করেন। তাঁদের সামনে আনতেই এই প্রচার।

Updated By: Mar 20, 2019, 10:09 AM IST
আজ ২৫ লক্ষ চৌকিদারের সঙ্গে কথা বলবেন নরেন্দ্র মোদী

নিজস্ব প্রতিবেদন: লোকসভার লড়াই শুরু হয়ে গিয়েছে গোটা দেশজুড়ে। বিজেপি ও কংগ্রেস একে অপরকে আক্রমণের ঝাঁঝ ক্রমশ বাড়াতে শুরু করেছে। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর বিরুদ্ধে 'চৌকিদার চোর হ্যায়' প্রচারকে তুঙ্গে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করছেন কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী।

এবার তারই পাল্টা হিসেবে বিজেপির তরফেও এবারের নির্বাচনে 'ম্যায় ভি চৌকিদার' প্রচারের জোর বাড়ানোর পরিকল্পনা নেওয়া হল। যার শুরু হবে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর হাত দিয়ে।

বুধবার নরেন্দ্র মোদী ২৫ লক্ষ চৌকিদার (নিরাপত্তারক্ষী)-এর সঙ্গে কথা বলবেন। গোটা দেশের বিভিন্ন প্রান্তের ২৫ লক্ষ চৌকিদারের সঙ্গে অডিয়ো কনফারেন্সে কথা বলবেন প্রধানমন্ত্রী।

আরও পড়ুন: সোশ্যাল মিডিয়াতে 'কোড অফ কন্ডাক্ট' চালু করার প্রস্তাব নির্বাচন কমিশনের!

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী গত শনিবারই 'ম্যায় ভি চৌকিদার' প্রচারের শুরু করেছেন। ওই দিন ট্যুইট করে প্রধানমন্ত্রী এই প্রচারের সূচনা করেন। দেশের সব মানুষকে এই প্রচারের অংশীদার হতে আহ্বান জানান।

এর পর সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে দেশের বিভিন্ন প্রান্তের বিভিন্ন পেশার মানুষ এই প্রচারের অংশীদার হন। বিজেপির সবস্তরের নেতারা নিজেদের নামের আগে 'চৌকিদার' শব্দটি জুড়ে দেন।

আরও পড়ুন: চৌকিদার পছন্দ নয়! ‘পাপ্পু’ জুড়ে দিক কংগ্রেসের কর্মীরাও, পরামর্শ বিজেপির

মঙ্গলবার কেন্দ্রীয় মন্ত্রী তথা বিজেপি নেতা রবিশঙ্কর প্রসাদ দাবি করেছিলেন, 'ম্যায় ভি চৌকিদার' প্রচার জন আন্দোলনে পরিণত হয়েছে। ২০ লক্ষ ট্যুইট হয়েছে।

এর পাশাপাশি কলার টিউনও প্রকাশ করা হল বিজেপির তরফে। বিভিন্ন সার্ভিস প্রোভাইডারে মিলছে ওই কলার টিউন। বুধবার সকালে বিজেপির তরফে ট্যুইট করে বিষয়টি জানানো হয়েছে।

বিজেপির মিডিয়া সেলের কনভেনার অনিল বালুনি জানিয়েছেন, সারা দেশের যে সব মানুষরা প্রচারের আলোর বাইরে থেকে কাজ করেন। তাঁদের সামনে আনতেই এই প্রচার।

এর পর মার্চের ৩১ তারিখ আবার এই প্রচারে সামিল হবেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। সেদিনও নিরাপত্তারক্ষীদের সঙ্গে কথা বলবেন প্রধানমনন্ত্রী। দেশের ৫০০টি জায়গায় 'চৌকিদার'রা থাকবেন। সেখান থেকে ভিডিয়ো কনফারেন্সের তাঁরা মোদীর সঙ্গে জুড়বেন।