এখনই বাড়ছে না জ্বালানির দাম

এখনই বাড়ছে না জ্বালানির দাম। কেন্দ্রীয় পেট্রোলিয়াম মন্ত্রী জয়পাল রেড্ডি ইন্ডিয়ান অয়েলের একটি অনুষ্ঠানে শুক্রবার একথা জানান।

Updated By: Sep 7, 2012, 01:28 PM IST

এখনই বাড়ছে না জ্বালানির দাম। কেন্দ্রীয় পেট্রোলিয়াম মন্ত্রী জয়পাল রেড্ডি ইন্ডিয়ান অয়েলের একটি অনুষ্ঠানে শুক্রবার একথা জানান।
জয়পাল রেড্ডি বলেন, "কেন্দ্রীয় মন্ত্রী হিসাবে এটা আমার দায়ীত্ব জ্বালানি সম্পর্কিত কোনও বিষয় ক্যাবিনেটের সামনে আনা, তবে তাঁরা কবে দাম বৃদ্ধির সিদ্ধান্ত নেবে সেটা আমি জানি না"। তবে রাজনৈতিক সূত্রে জানা গিয়েছে, জ্বালানির দাম বৃদ্ধির সিদ্ধান্ত এক সপ্তাহ পিছিয়ে দেওয়া হয়েছে।
কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর এই মন্তব্যে ইতিমধ্যেই রাষ্ট্রীয় তেল সংস্থা গুলির শেয়ারে পতন শুরু হয়ে গিয়েছে। ভারত পেট্রোলিয়ামের শেয়ার ৩ শতাংশ পড়ে গিয়েছে। একই ছবি হিন্দুস্তান পেট্রোলিয়াম এবং ইন্ডিয়ান অয়েলের মতো সংস্থা গুলির। হিন্দুস্তান পেট্রোলিয়ামের শেয়ারে ২.৭৫ শতাংশ ধস নেমেছে, অন্যদিকে ইন্ডিয়ান অয়েলের শেয়ার পতন হয়েছে ১.৭৫ শতাংশ।
ইন্ডিয়ান অয়েলের চেয়ারম্যান আর. এস. বুটোলা জানিয়েছেন তাঁর সংস্থা প্রতি লিটার পেট্রোলে প্রায় ৬ টাকা ঘটতি করে। তিনি বলেন, "অবিলম্বে জ্বালানির মূল্যবৃদ্ধির প্রয়োজন হয়ে পড়েছে, আমরা এই বিষয়টি নিয়ে তেল সংস্থাগুলির সঙ্গেও কথা বলছি"। বৃহস্পতিবার জানা গিয়েছিল, ক্ষতিতে ধুঁকতে থাকা রাষ্ট্রীয় তেল সংস্থাগুলি আবারও একবার জ্বালানীর দাম বৃদ্ধি করতে চলেছে। আগামী ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে দেশ জুড়ে প্রেট্রোলের দাম ৫ টাকা পর্যন্ত বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছিল।
প্রেট্রোলের দাম বৃদ্ধির সঙ্গে রান্নার গ্যাস ও ডিজেলের দাম আরও চড়া হওয়ার ইঙ্গিত মিলেছিল তেল প্রস্তুতকারক সংস্থাগুলির তরফে। পেট্রোল মহার্ঘ হওয়ার সিদ্ধান্ত শুক্র অথবা শনিবারের মধ্যে ঘোষণা করার কথাও শোনা যায়। অন্যদিকে, ডিজেল, রান্নার গ্যাসের দাম আগামী সপ্তাহের মধ্যে বাড়তে পারে বলে মনে করা হয়।
আন্তর্জাতিক বাজারে লাগামছাড়া তেলের দাম বৃদ্ধির ফলে রাষ্ট্রায়ত্ত তেল সংস্থাগুলি দৈনিক ৫৫০ কোটি টাকা ঘটতিতে চলছে। প্রতি লিটার ডিজেলে সংস্থাগুলির ক্ষতি হয় ১৭ টাকা; কেরোসিনে প্রতি লিটারে ক্ষতি থাকে ৩২.৭ টাকা; প্রতিটি রান্নার গ্যাসের সিলিন্ডারে ক্ষতির পরিমান ৩৪৭ টাকা।