ভিনধর্মী দম্পতিকে পাসপোর্ট অফিসে হেনস্থা, পদক্ষেপ বিদেশমন্ত্রকের

 ভিনধর্মী দম্পতিকে হেনস্থার অভিযোগে পাসপোর্ট অফিসারকে বদলি। 

Updated By: Jun 21, 2018, 07:16 PM IST
ভিনধর্মী দম্পতিকে পাসপোর্ট অফিসে হেনস্থা, পদক্ষেপ বিদেশমন্ত্রকের

নিজস্ব প্রতিবেদন: ভিনধর্মী দম্পতিকে হেনস্থার অভিযোগে পাসপোর্ট অফিসার বিকাশ মিশ্রকে বদলি করল বিদেশমন্ত্রক। ওই দম্পতিকে পাসপোর্ট জারি করা হয়েছে। এরমধ্যেই ব্রাসেলস থেকে লখনৌয়ের পাসপোর্ট অফিসকে গোটা ঘটনার বিস্তারিত তথ্য চেয়ে পাঠিয়েছেন বিদেশমন্ত্রী সুষমা স্বরাজ। 

১১ বছর ধরে দাম্পত্যজীবন কাটাচ্ছেন মহম্মদ আনাস সিদ্দিকি ও তনবী শেঠ। গত ১৯ জুন লখনৌয়ের পাসপোর্ট অফিসে পাসপোর্টের জন্য আবেদন করেন তাঁরা। প্রথম দুই পর্যায়ে তাঁরা সফলভাবেই উত্তীর্ণ হন তাঁরা। অভিযোগ, ভিনধর্মে বিয়ের জন্য তৃতীয় পর্যায়ে তাঁদের পাসপোর্টের আবেদন খারিজ করেন বিকাশ মিশ্র। তবে তাঁর সাফাই, ''বিবাহের শংসাপত্রে তনবী শেঠের নাম লেখা রয়েছে সাজিয়া আনাস। এজন্য তাঁর কাছে প্রমাণপত্র চাওয়া হয়। নাম পরিবর্তন করে পাসপোর্ট যাতে কেউ না বানাতে পারে, তা নিশ্চিত করাই আমাদের কাজ।''             

আনাসের অভিযোগ, আমার সন্তানের নাম মহম্মদ আনাস সিদ্দিকি দেখার পরই রেগে যান বিকাশ মিশ্র। বলেন, মুসলিমকে বিয়ে করা উচিত হয়নি আমার স্ত্রীর। পরিবর্তিত নামে সমস্ত নথি আনতে বলেন উনি। আমাদের বিবাহ বৈধ নয় বলেও জানান ওই পাসপোর্ট অফিসার। এমনকি ধর্মান্তর হয়ে সাত পাকে বিবাহের প্রস্তাবও দেন তিনি।' টুইটারে বিদেশমন্ত্রী সুষমা স্বরাজকে তনবী লেখেন, ''আমি মুসলিমকে বিয়ে করেছি। কিন্তু নিজের নাম বদলাইনি। সে জন্য আমাকে হেনস্থা হতে হল।'' 

আরও পড়ুন- লিটারে পেট্রোলের দর ১১ টাকা পর্যন্ত কমতে পারে কেন্দ্রের সিদ্ধান্তে

দম্পতির অভিযোগের পরই ব্যবস্থা নেওয়ার আশ্বাস দেয় বিদেশমন্ত্রক। তারা জানায়, ঘটনাটি খতিয়ে দেখা হচ্ছে। উপযুক্ত ব্যবস্থা নেওয়া হবে। এরপরই বিকাশ মিশ্রকে কারণ দর্শানোর নোটিস পাঠান আঞ্চলিক পাসপোর্ট কর্তা পীযূষ বর্মা। তাঁকে বদলিও করেছে বিদেশমন্ত্রক।

আরও পড়ুন- নকশাল, বীরাপ্পনকে সবক শেখানো অফিসাররাই এবার কাশ্মীরে