মহারাষ্ট্রের কুর্সিতে বসার পর প্রধানমন্ত্রী মোদীর সঙ্গে প্রথম সাক্ষাত উদ্ধব ঠাকরের

মুখ্যমন্ত্রী হওয়ার পর উদ্ধবকে শুভেচ্ছা বার্তা জানিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী। উত্তরে, ‘বড় দাদা’ বলে প্রধানমন্ত্রীকে সম্বোধন করেন উদ্ধব। বিজেপির সঙ্গে শিবসেনার সম্পর্ক তিন দশকের। মহারাষ্ট্রের নির্বাচনে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে লড়াই করে দুই দল

Updated By: Dec 7, 2019, 01:21 PM IST
মহারাষ্ট্রের কুর্সিতে বসার পর প্রধানমন্ত্রী মোদীর সঙ্গে প্রথম সাক্ষাত উদ্ধব ঠাকরের
ছবি-টুইটার

নিজস্ব প্রতিবেদন: মহারাষ্ট্রের মসনদে বসার পর এই প্রথম প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সঙ্গে মুখোমুখি দেখা উদ্ধব ঠাকরের। শুক্রবার পুনে বিমানবন্দরে প্রধানমন্ত্রীকে শুভেচ্ছা জানাতে আসেন মহারাষ্ট্রের মুখ্য়মন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরে। রাজ্যগুলির ডিজি, আইজি, গোয়েন্দা বিভাগের প্রধানদের নিয়ে তিন দিনের কনফারেন্সে যোগ দিচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী। সেই কারণেই আসা শিবসেনা-কংগ্রেস-এনসিপি জোটের মহারাষ্ট্রে। সঙ্গে ছিলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ, মহারাষ্ট্রের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী দেবেন্দ্র ফডণবীসও।

মুখ্যমন্ত্রী হওয়ার পর উদ্ধবকে শুভেচ্ছা বার্তা জানিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী। উত্তরে, ‘বড় দাদা’ বলে প্রধানমন্ত্রীকে সম্বোধন করেন উদ্ধব। বিজেপির সঙ্গে শিবসেনার সম্পর্ক তিন দশকের। মহারাষ্ট্রের নির্বাচনে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে লড়াই করে দুই দল। ব্যাপক জনমত পাওয়া সত্ত্বেও ক্ষমতার লড়াইয়ে ভাঙন ধরে তিন দশকের সম্পর্কের।

আরও পড়ুন- ঝাড়খণ্ড বিধানসভা নির্বাচন: কড়া নিরাপত্তায় দ্বিতীয় দফার ভোটগ্রহণ চলছে, বাড়তি নজর মাও-প্রভাবিত বুথে

'আধা মুখ্যমন্ত্রীর' দাবি বিজেপি না মানায়, এনডিএ থেকে বেরিয়ে আসে শিবসেনা। বিরোধী এনসিপি এবং কংগ্রেসের সঙ্গে জোট তৈরি করে সরকার গড়ে। মুখ্যমন্ত্রী হন শিবসেনা সুপ্রিমো উদ্ধব ঠাকরে। এই প্রথম ঠাকরে পরিবারের কোনও সদস্য মহারাষ্ট্রের কুর্সিতে বসলেন। কিন্তু প্রশ্ন উঠছে, হিন্দুত্বের রাজনীতি করে যে দলের উত্থান হয়, সেই দল কীভাবে কংগ্রেস-এনসিপির সঙ্গে এক ছাদের তলায় ঘর বাঁধতে পারে। এই রসায়নে বিশেষজ্ঞরাও অবাক হয়েছেন। তাই তাঁদের মত, মহরাষ্ট্রে এই মডেল সফল হলে, জাতীয় রাজনীতিতে নজিরবিহীন ঘটনা হতে পারে।