নকশাল, বীরাপ্পনকে সবক শেখানো অফিসাররাই এবার কাশ্মীরে

জম্মু-কাশ্মীরে মুখ্যসচিব ছত্তিসগঢ়ের আইএএস অফিসার বিভিআর সুব্রহ্মণ্যম ও রাজ্যপালের উপদেষ্টা হলেন বিজয় কুমার।

Updated By: Jun 21, 2018, 04:44 PM IST
নকশাল, বীরাপ্পনকে সবক শেখানো অফিসাররাই এবার কাশ্মীরে

নিজস্ব প্রতিবেদন: জম্মু-কাশ্মীরে সন্ত্রাসবিরোধী অভিযানে ধার বাড়াতেই সরকার থেকে সরে এসেছে বিজেপি। বৃস্পতিবার সরকারের এক সিদ্ধান্তে সত্যি হল এই অনুমানই। রাজ্যপাল শাসন জারির পর সে রাজ্যে মুখ্যসচিব করা হল ছত্তিসগঢ়ের আইএএস অফিসার বিভিআর সুব্রহ্মণ্যমকে। আর রাজ্যপালের উপদেষ্টা হলেন বিজয় কুমার। চন্দনদস্যু বীরপ্পনের নিকেশ অভিযানের নেতৃত্ব দিয়েছিলেন এই আইপিএস।  

সুব্রহ্মণ্যম ও বিজয় কুমারের নিয়োগ নির্দেশিকাই ইঙ্গিত দিচ্ছে, জম্মু-কাশ্মীরে এবার জোরকদমে সন্ত্রাস বিরোধী অভিযান শুরু করতে চলেছে কেন্দ্রীয় সরকার। ১৯৮৭ সালের ব্যাচের সুব্রহ্মণ্যম অত্যন্ত দক্ষ আধিকারিক। নকশালদের বিরুদ্ধে সফল অভিযানে নেতৃত্ব দিয়েছেন তিনি। উল্লেখ্যযোগ্যভাবে, প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিংয়ের অত্যন্ত আস্থাভাজন ছিলেন বিভিআর সুব্রহ্মণ্য। প্রথম ইউপিএ সরকারের জমানায় মনমোহনের ব্যক্তিগত সচিব ছিলেন। ২০১২ সালে যুগ্মসচিব হিসেবেও কাজ করেছেন। মাঝে ৩ বছর বিশ্বব্যাঙ্কে কাজ করেছেন সুব্রহ্মণ্যম। মোদী জমানায় ২০১৫ সাল পর্যন্ত প্রধানমন্ত্রীর দফতরে কাজ করেছেন। তারপর ছত্তিসগঢ়ে নকশাল দমনে পাঠানো হয় তাঁকে।            

বিজয় কুমারই সেই অফিসার, যিনি ২০০৪ সালে চন্দনদস্যু বীরাপ্পনকে খতম করেছিলেন। ১৯৭৫ সালে আইপিএস হন বিজয় কুমার। ১৯৯৮-২০০১ পর্যন্ত বিএসএফের আইজি হিসেবে কাশ্মীরে কাজ করেন ২০১০ সালে দন্তেওয়াড়ায় মাওবাদী হামলায় শহিদ হন ৭৫ জন জওয়ান। তারপর বিশ্বের বৃহত্তম আধা সামরিক বাহিনী সিআরপিএফের ডিজির দায়িত্ব সামলান বিজয় কুমার। তাঁর কার্যকালে একের পর এক অভিযান করে মাওবাদীদের কোমর ভেঙে দেয় সিআরপিএফ।

আরও পড়ুন- লিটারে পেট্রোলের দর ১১ টাকা পর্যন্ত কমতে পারে কেন্দ্রের সিদ্ধান্তে