বর্ষায় ১ লক্ষ উদ্বাস্তু উচ্ছেদ বন্ধ হোক, ভারতকে আর্জি রাষ্ট্রসংঘের

শুক্রবারই ভারতের কাছে আর্জি জানিয়েছে রাষ্ট্রসংঘের বিশেষজ্ঞ দল। 

Updated By: Jul 18, 2021, 01:32 PM IST
বর্ষায় ১ লক্ষ উদ্বাস্তু উচ্ছেদ বন্ধ হোক, ভারতকে আর্জি রাষ্ট্রসংঘের

নিজস্ব প্রতিবেদন: উদ্বাস্তু রোধে এবার আসরে নামল রাষ্ট্রসংঘ (UN)। বর্ষাকালে উদ্বাস্তুদের মাথা গোঁজার ঠাঁই কেড়ে না নেওয়ার জন্য শুক্রবারই ভারতের কাছে আর্জি জানিয়েছে রাষ্ট্রসংঘের বিশেষজ্ঞ দল। হরিয়ানার খোরি গ্রাম (Haryana's Khori) থেকে প্রায় ১ লাখ উদ্বাস্তু উচ্ছেদ বন্ধ রোধ করার জন্য ভারতীয় কর্তৃপক্ষকে আবেদন জানিয়েছেন তাঁরা৷ 

রাষ্ট্রসংঘের তরফে বলা হয়েছে সেখানকার এই বাসিন্দারা যাতে গৃহহীন না হয়ে পড়ে তার জন্য খোরি গ্রামে জরুরি ভিত্তিতে কিছু পরিকল্পনা পর্যালোচনা এবং জনবসতি বৃদ্ধির করার বিষয়ে বিবেচনা করুক ভারত। যদিও জুনের ৭ তারিখ সুপ্রিম কোর্ট ফরিদাবাদের পুরসভাকে নির্দেশ দিয়েছিল উদ্বাস্তু সরানোর বিষয়ে৷ 

খোরি গ্রামে যে এলাকায় এরা বসবাস করেন তা আদতে বনভূমি। ভারতীয় আইন অনুসারে বনভূমির মধ্যে তাদের স্থায়ী বাসস্থান তৈরি করা আইনত অপরাধ। সংবাদসংস্থা পিটিআই সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশকে উধৃত করে জানায় যে বনভূমির মধ্যে অবৈধ বাড়ি ভাঙার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে পুরসভাকে। 

আরও পড়ুন, সুপ্রিম কোর্টের কড়া পর্যবেক্ষণে পিছু হটল যোগী সরকার, বাতিল কানওয়ার যাত্রা

রাষ্ট্রসংঘে অবস্থিত ভারতীয় স্থায়ী কমিটির তরফে একটি প্রেস বিজ্ঞপ্তি দিয়ে এই আর্জির প্রেক্ষিতে জানান হয়েছে, এটি অত্যন্ত দুর্ভাগ্যজনক যে আগাম খবর আসার আগেই একটি বিবৃতি জারি করে দেওয়া রাষ্ট্রসংঘের তরফে৷ প্রতিক্রিয়া পাওয়ার আগেই বিজ্ঞপ্তি জারি হয়েছে৷ সুপ্রিম কোর্টের আদেশের প্রেক্ষিতে যে কথা বলা হয়েছে তা অবমামনাকর। 

এদিকে, খোরি গ্রামে এই উদ্বাস্তু উচ্ছেদ নিয়ে বিক্ষোভ প্রতিবাদ জারি রয়েছে। বাড়ি ভাঙার বিরোধিতা করায় এক পুলিসকর্মীর লাঠির আঘাতও খেতে হয় বলে অভিযোগ৷ সোশাল মিডিয়াতেও ছড়িয়ে পড়েছিল সেই ভিডিও। যদিও তার সত্যতা যাচাই করে দেখেনি জি ২৪ ঘন্টা।