'অস্তিত্বের সঙ্কট' এড়াতে হিন্দুদের অবশ্যই ২-৩ সন্তান থাকা জরুরি, দাবি VHP নেতা Milind Parande-র

মিলিন্দ পারন্দে দাবি করেছেন যে ইতিহাসে আছে যে হিন্দু জনসংখ্যা কমলে দেশের অখণ্ডতার জন্য তা সমস্যা সৃষ্টি করে

Updated By: Jan 14, 2022, 01:59 PM IST
'অস্তিত্বের সঙ্কট' এড়াতে হিন্দুদের অবশ্যই ২-৩ সন্তান থাকা জরুরি, দাবি VHP নেতা Milind Parande-র
ফাইল চিত্র

নিজস্ব প্রতিবেদন: মধ্যপ্রদেশে (Madhya Pradesh) এক সভায় ভাষণ দিতে গিয়ে, বিশ্ব হিন্দু পরিষদ (VHP) নেতা মিলিন্দ পারন্দে (Milind Parande) বলেন, হিন্দু যুবকদের বিয়ের পর কমপক্ষে দুই-তিনটি সন্তান থাকা উচিত কারণ তাদের জনসংখ্যা হ্রাস পেলে "অস্তিত্বের সংকট" দেখা দেবে।

মিলিন্দ পারন্দে খন্ডোয়ায় (Khandwa) ভিএইচপি এবং বজরং দল (Bajrang Dal) আয়োজিত হিন্দু যুব সম্মেলনে (Hindu Youth Conference) বক্তৃতা দেওয়ার সময়ে এই কথা বলেন। এই সপ্তাহে আয়োজিত এই অনুষ্ঠানে বিপুল সংখ্যক যুবক অংশগ্রহণ করেন।

মিলিন্দ পারন্দে বলেন, “প্রত্যেক যুবকের মনে করা উচিত যে বিয়ের পর প্রতিটি হিন্দু পরিবারে অন্তত দুই থেকে তিনটি সন্তান থাকা উচিত। জনসংখ্যা কমে গেলে হিন্দুদের জন্য একটি সঙ্কট দেখা দেবে। এবং তাই, শুধুমাত্র একজন ব্যক্তির জন্য নয়, সমাজের সুরক্ষার জন্য, প্রতিটি হিন্দু পরিবারে দুই থেকে তিনটি সন্তান থাকা উচিত।”

তিনি বলেন, হিন্দু সম্প্রদায় তাদের ইতিহাস থেকে অনুপ্রেরণা নিয়েছিল এবং সেই কারণেই ব্রিটিশ ঔপনিবেশিক প্রভুরা তাদের অতীতের সঙ্গে সংযোগটি ভেঙে দেওয়ার চেষ্টা করে। ব্রিটিশরা একটি নতুন শিক্ষা ব্যবস্থা চালু করেছিল যা হিন্দুদের তাদের পূর্বপুরুষ এবং ইতিহাস সম্পর্কে বিব্রত বোধ করায়।

আরও পড়ুন: Covid 19: হাসপাতালে মাত্র ১৫ শতাংশ বেড ভর্তি! Delhi-তে কোভিড সংক্রমণ কমার ইঙ্গিত মন্ত্রীর 

মিলিন্দ পারন্দে বলেন, “তারা আমাদের শিক্ষা ব্যবস্থাকে কলুষিত করেছে... যে কোনো সমাজ যে তার পূর্বপুরুষদের নিয়ে লজ্জিত বোধ করে, সে বেশিদিন টিকে থাকে না”।

মিলিন্দ পারন্দে দাবি করেছেন যে “হিন্দুদের জনসংখ্যা হ্রাস পাচ্ছে এবং ধর্মান্তরিত হওয়ার বিপদ বাড়ছে। মুসলিমদের জনসংখ্যাও বাড়ছে। ইতিহাসে আছে যে হিন্দু জনসংখ্যা কমলে দেশের অখণ্ডতার জন্য তা সমস্যা সৃষ্টি করে। হিন্দুদের উচিত প্রচুর পরিমাণে উপস্থিত থাকা যাতে দেশ আবার ভাগ না হয়।”

তিনি উত্তর প্রদেশের (Uttar Pradesh) কাশী (Kashi), মথুরা (Mathura) এবং অযোধ্যায় (Ayodhya) মন্দির-মসজিদ বিরোধের প্রসঙ্গ তোলেন যেখানে আগামী মাসে নির্বাচন হতে চলেছে। তিনি বলেন, “কাশী, মথুরা এবং অযোধ্যা হল হিন্দু সমাজের সংকল্প। হিন্দু সমাজকে তার সংকল্প পূরণ করতে হবে। বিশ্ব হিন্দু পরিষদ রাম জন্মভূমি আন্দোলনের নেতৃত্ব দিয়েছিল এবং এই সংকল্পটিও পূরণ হচ্ছে।”

(Zee 24 Ghanta App দেশ, দুনিয়া, রাজ্য, কলকাতা, বিনোদন, খেলা, লাইফস্টাইল স্বাস্থ্য, প্রযুক্তির লেটেস্ট খবর পড়তে ডাউনলোড করুন Zee 24 Ghanta App)