কেরলের বিমান দুর্ঘটনার পর রুদ্ধশ্বাস ৫ মিনিট, যা শুনলে শিহরণ জাগবে আপনার

এত সংখ্যক যাত্রীর কথা ভেবে স্থানীয় লোকেদের উদ্ধারকার্যে হাত লাগানোর অনুমতি দেন কালিকূট বিমান বন্দরের ডেপুটি কমান্ডান্ট

Edited By: সোমনাথ মিত্র | Updated By: Aug 9, 2020, 08:10 PM IST
কেরলের বিমান দুর্ঘটনার পর রুদ্ধশ্বাস ৫ মিনিট, যা শুনলে শিহরণ জাগবে আপনার

নিজস্ব প্রতিবেদন: কেরলের কালিকূট জাতীয় বিমান বন্দরে শুক্রবার সন্ধ্যায় ৭টা ৪০ নাগাদ রানওয়ে থেকে পিছলে গিয়ে দুখণ্ড হয়ে যায় বিমান IX-১৩৪৪। ১৯০ জন আরোহী সমেত দুবাই থেকে আসা এই বিমানটি যখন দুর্ঘটনার সম্মুখীন হয়, প্রথম ওয়াকি টকি মারফত খবর এসেছিল  CISF কন্ট্রোল রুমে। তারপর কি হয়েছিল প্রথম ৫ মিনিটে? এক নজরে চুলচেরা বিশ্লেষন...

৭ টা বেজে ৪০ মিনিট:  অ্যাসিসট্যান্ট সাব ইনসপেক্টর অজিত সিং দাড়িয়ে ছিলেন গেট নম্বর আটে। বিমানের এরূপ অবস্থা দেখে খবর দেন CISF কন্ট্রোল রুমে।

৭ টা ৪১ মিনিট: CISF কন্ট্রোল রুম থেকে ফোন যায় এয়ার ট্রাফিক কন্ট্রোল ও CISF কুইক রেসপন্স টিমের কাছে।

৭ টা বেজে ৪২ মিনিট:  সতর্কতা পৌঁছে যায় এয়ারপোর্ট দমকল কেন্দ্রে।

৭টা ৪৩ মিনিট: CISF থেকে ফোন যায় এয়ারপোর্ট স্বাস্থ্য বিভাগে।

৭ টা ৪৪ মিনিট: CISF যোগাযোগ করে টার্মিনাল ম্যানেজারকে। দ্বিতীয়বার ফোন করা হয় স্বাস্থ্য বিভাগকে।

৭ টা বেজে ৪৫ মিনিট: স্থানীয় পুলিসকে খবর দেয় CISF।

বিমান দূর্ঘটনার ৫-৭ মিনিটের মধ্যেই স্থানীয় লোকেরা চলে আসেন দুর্ঘটনা স্থলে। এত সংখ্যক যাত্রীর কথা ভেবে স্থানীয় লোকেদের উদ্ধারকার্যে হাত লাগানোর অনুমতি দেন কালিকূট বিমান বন্দরের ডেপুটি কমান্ডান্ট। ১৮ জনের মৃত্যু ও প্রায় ১৫০ জন চিকিৎসাধীন এই ভয়াবহ দুর্ঘটনার পরে। আহতদের করোনা পরীক্ষা করে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

আরও পড়ুন: জেরার পরই আত্মহত্যা ২১ বছরের তরুণীর! অভিযোগের আঙুল পুলিসের দিকেই