নীরব মোদী কোথায় আছেন! ভারতকে জানাল ব্রিটিশ সংস্থা

জুন মাসে ভারতীয় বিদেশ মন্ত্রকের তরফে ইউরোপের বিভিন্ন দেশে নীরবের গ্রেফতারির ব্যাপারে আবেদন করা হয়েছিল।

Updated By: Dec 29, 2018, 03:49 PM IST
নীরব মোদী কোথায় আছেন! ভারতকে জানাল ব্রিটিশ সংস্থা

নিজস্ব প্রতিনিধি : পাঞ্জাব ন্যাশনাল ব্যাঙ্ক কেলেঙ্কারির অন্যতম হোতা নীরব মোদী রয়েছেন ব্রিটেনেই। সিবিআইকে আগেই জানিয়েছিল ব্রিটিশ সরকার। তথ্য হাতে পাওয়ার পরই তাঁকে দেশ ফেরানোর প্রক্রিয়া শুরু করেছিল কেন্দ্রীয় তদন্ত সংস্থা। এবার ব্রিটিশ গোয়েন্দা সংস্থার তরফেও জানানো হল, নীরব ব্রিটেনে লুকিয়ে রয়েছেন। সিবিআই ব্রিটেন সরকারের কাছে নীরবকে দেখামাত্র গ্রেফতারের আবেদন করে। কারণ, তাঁর বিরুদ্ধে ইন্টারপোল নোটিশ জারি করেছিল। এবার ব্রিটিশ সংস্থার এমন রিপোর্ট নীরবকে ভারতে ফেরত আনায় প্রক্রিয়ায় কিছুটা হলেও অ্যাডভান্টেজ দেবে বলে আশা করা যায়।

আরও পড়ুন- বিপুল অনাদায়ী ঋণের জন্য কাঠগড়ায় একাধিক রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্ক, ৬০০০ কর্মীকে শাস্তি কেন্দ্রের

পাঞ্জাব ন্যাশনাল ব্যাঙ্ক থেকে প্রায় ১৩ হাজার কোটি টাকা ঋণখেলাপ করে বেপাত্তা হয়েছেন নীরব মোদী। তাঁর মামা মেহুল চেকসিরও কোনও খোঁজ নেই। ভারতের বিদেশ প্রতিমন্ত্রী ভিকে সিং এদিন বললেন, ন্যাশনাল সেন্ট্রাল ব্যুরো অফ ম্যাঞ্চেস্টার সিবিআইকে নীরব মোদির হদিশ দিয়েছে। ওকে দেশে ফেরানোর প্রক্রিয়া চলছে। চলতি বছরের আগস্টে ব্রিটেন সরকারের কাছে নীরবের গ্রেফতারির ব্যাপারে দুই বার অনুরোধ করা হয়েছিল। একবার সিবিআইয়ের তরফে অনুরোধ করা হয়। পরেরবার এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট-এর তরফেও ব্রিটেনে আবেদন করা হয়। ব্রিটেন সরকারের তরফেও তদন্তে যথাসম্ভব সাহায্য করার আশ্বাস দেওয়া হয়েছিল। 

আরও পড়ুন- রেলের মুকুটে নয়া পালক, 'মেক ইন ইন্ডিয়া'য় তৈরি ট্রেন চলছে পড়শি দেশে

জুন মাসে ভারতীয় বিদেশ মন্ত্রকের তরফে ইউরোপের বিভিন্ন দেশে নীরবের গ্রেফতারির ব্যাপারে আবেদন করা হয়েছিল। এমনিতে নীরবের বিরুদ্ধে রেড কর্নার নোটিশ জারির পর ইন্টারপোল পৃথিবীর ১৯২ দেশকে তা জানিয়ে দেয়। যে কোনও দেশের সরকার নীরব মোদিকে দেখামাত্রই গ্রেফতার করতে পারে। তা ছাড়া নীরব মোদির পাসপোর্ট বাতিল করার পরই তা ইন্টারপোলকে জানিয়ে দেয় ভারতের বিদেশমন্ত্রক। পিএনবি জালিয়াতি মামলায় নীরব মোদী, তাঁর মার্কিন নাগরিক স্ত্রী অ্যামি মোদী, বেলজিয়ামের নাগরিক নীরবের ভাই নিসাল মোদী ও নীরবের মামা মেহুল চোকসির বিরুদ্ধে এফআইআর করেছে সিবিআই। উল্লেখ্য, নীরব মোদি ও তাঁর মামা মেহুল দুজনইে দেশে ফিরে তদন্তের আওতায় থাকতে অস্বীকার করেছিলেন।