ফেসবুকে এলকোর বিতর্কিত মন্তব্য,ছাড়ো ছাড়ো মনোভাব স্পষ্ট

ইস্টবেঙ্গলের দায়িত্ব নেওয়ার দেড় মাসের মধ্যেই বিতর্কে জড়ালেন এলকো সাতোরি। রয়্যাল ওয়াইন্ডোর বিরুদ্ধে ম্যাচের একদিন আগে ফেসবুকে এলকোর একটি মন্তব্যে রীতিমত আলোড়ন সৃষ্টি হয়। সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং সাইটের মাধ্যমে মধ্যপ্রচ্যে যে কোনও দেশে কোচিং করানোর জন্য প্রস্তাব দেন একজন এজেন্ট। সঙ্গে সঙ্গে সেই এজেন্টকে মেলের মাধ্যমে তার সিভি পাঠাতে উতসাহী হয়ে পরেন এলকো। দায়িত্ব নেওয়ার দেড় মাসের মধ্যেই এলকোর এই কর্মকান্ডে নতুন করে বিতর্ক জন্ম দেয় ময়দানে। প্রশ্ন উঠতে শুরু করে তবে কি অল্প কয়েকদিনেই ইস্টবেঙ্গলের সঙ্গে দুরত্ব শুরু হয়েছে ডাচ কোচের? তাই কি এখন থেকেই নতুন চাকরির খোঁজে নেমে পরলেন এলকো। লালহলুদ কর্তারা অস্বস্তিতে পরে যান।

Updated By: Mar 31, 2015, 08:10 PM IST
ফেসবুকে এলকোর বিতর্কিত মন্তব্য,ছাড়ো ছাড়ো মনোভাব স্পষ্ট

ওয়েব ডেস্ক: ইস্টবেঙ্গলের দায়িত্ব নেওয়ার দেড় মাসের মধ্যেই বিতর্কে জড়ালেন এলকো সাতোরি। রয়্যাল ওয়াইন্ডোর বিরুদ্ধে ম্যাচের একদিন আগে ফেসবুকে এলকোর একটি মন্তব্যে রীতিমত আলোড়ন সৃষ্টি হয়। সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং সাইটের মাধ্যমে মধ্যপ্রচ্যে যে কোনও দেশে কোচিং করানোর জন্য প্রস্তাব দেন একজন এজেন্ট। সঙ্গে সঙ্গে সেই এজেন্টকে মেলের মাধ্যমে তার সিভি পাঠাতে উতসাহী হয়ে পরেন এলকো। দায়িত্ব নেওয়ার দেড় মাসের মধ্যেই এলকোর এই কর্মকান্ডে নতুন করে বিতর্ক জন্ম দেয় ময়দানে। প্রশ্ন উঠতে শুরু করে তবে কি অল্প কয়েকদিনেই ইস্টবেঙ্গলের সঙ্গে দুরত্ব শুরু হয়েছে ডাচ কোচের? তাই কি এখন থেকেই নতুন চাকরির খোঁজে নেমে পরলেন এলকো। লালহলুদ কর্তারা অস্বস্তিতে পরে যান।

নানা জল্পনা উস্কে দিয়ে বিতর্কিত এলকো মঙ্গলবার সকালেই ড্যামেজ কন্ট্রোলে নেমে পরেন। বেগতিক দেখে ভুল স্বীকার করে  টুইট করেন এলকো।  জানান এখনই অন্য কোনও ক্লাবে যাওয়া লক্ষ্য নেই তার। তার ভাবনায় শুধই ইস্টেঙ্গল। লালহলুদের জন্য সেরাটা দিতে চান তিনি।