বিকিনি পরা ছবিগুলি কি ক্রোয়েশিয়া প্রেসিডেন্টেরই?

রাশিয়া বিশ্বকাপের গ্রুপ পর্বের ম্যাচে আর্জেন্টিনাকে হারানোর পর থেকেই কোলিন্দার বিকিনি পরা ছবি ইন্টারনেটে ভাইরাল হয়ে পড়ে।

Updated By: Jul 17, 2018, 04:00 PM IST
বিকিনি পরা ছবিগুলি কি ক্রোয়েশিয়া প্রেসিডেন্টেরই?

নিজস্ব প্রতিবেদন : রাশিয়া বিশ্বকাপের সুপারফ্যান হিসেবে ইতিমধ্যেই মস্কো-সহ গোটা ফুটবল বিশ্বের মন জয় করে নিয়েছেন ক্রোয়েশিয়ার প্রেসিডেন্ট কোলিন্দা গ্রাবার কিতারোভিচ। এর বাইরেও খবরের শিরোনামে রয়েছেন তিনি। সমুদ্র সৈকতে ক্রেয়েশিয়ার প্রেসিডেন্টের বিকিনি পরা কয়েকটি ছবি সোশ্যাল সাইটে ভাইরাল হয়েছে। এরপরেই কোলিন্দাকে বিশ্বের সবচেয়ে আবেদনময়ী প্রেসিডেন্ট বলা হচ্ছে। কিন্তু, ভাইরাল হওয়া সেই ছবি গুলি কি সত্যিই কোলিন্দার?

আরও পড়ুন - তিনি কাঁদলেন, তিনি কাঁদালেন!

রাশিয়া বিশ্বকাপের গ্রুপ পর্বের ম্যাচে আর্জেন্টিনাকে হারানোর পর থেকেই কোলিন্দার বিকিনি পরা ছবি ইন্টারনেটে ভাইরাল হয়ে পড়ে। কীভাবে ৫০ বছর বয়সেও নিজেকে আকর্ষণীয় করে রেখেছেন তিনি এই নিয়ে আলোচনার ঝড় ওঠে। ২০১৫ সালে ক্রেয়েশিয়ার প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হন কোলিন্দা গ্রাবার কিতারোভিচ। ব্যক্তিগত ও পেশাগত জগত্ পৃথক রেখে জীবনযাপন করায় তাঁর সুনাম আছে। এহেন কিতারোভিচ যে প্রেসিডেন্ট হয়ে এমন ছবি তুলবেন না, সে বিষয়ে তাই একমত একটা বড় অংশ।

অনেকের মতে, সৈকতে ছোট্ট বিকিনি পরা যে ছবিগুলি সম্প্রতি ইন্টারনেটে ভাইরাল হয়েছে, সেগুলি বেশ কয়েক বছর আগে তোলা। প্রেসিডেন্ট হিসাবে নির্বাচিত হওয়ার আগেই এইসব ছবি ক্যামেরাবন্দি হয়েছিল বলে দাবি করা হয়েছে।

আরও পড়ুন - রুশ প্রধানমন্ত্রীর সামনে ক্রোয়েশিয়া প্রেসিডেন্টের নাচ, ভাইরাল ভিডিও

কিন্তু, এদিকে সামনে এসেছে ভিন্ন তথ্য। জানা যাচ্ছে, বিকিনি পরা যে ছবিগুলি ক্রোয়েশিয়ার প্রেসিডেন্ট কোলিন্দা গ্রাবার কিতারোভিচের ছবি বলে ভাইরাল হয়েছে, সেগুলো আসলে তাঁর ছবিই নয়। ছবিগুলি আমেরিকান মডেল কোকো অস্টিনের। ২০০৯ সাল নাগাদ এই ছবিগুলি তোলা হয়েছিল। এরপর ২০১৫ সালে কোলিন্দা প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হওয়ার পরই তা ভাইরাল হওয়া শুরু হয়। অদ্ভুতভাবে ক্রোট প্রেসিডেন্টের সঙ্গে সাদৃশ্য রয়েছে মার্কিন মডেল অস্টিনের।

তবে এই প্রথমবার নয়, এর আগেও কোলিন্দাকে এমন বিব্রত হতে হয়েছে। প্রায় এক দশক আগে একটি সার্বিয়ান ট্যাবলয়েডের প্রতিবেদনে দাবি করা হয় যে, ক্রোট প্রেসিডেন্ট কোলিন্দা একজন পর্নস্টার ছিলেন এবং যে ছবিটি দিয়ে খবরটা ভাইরাল করা হয় তা ছিল আমেরিকান পর্ন স্টার ডায়মন্ড ফক্সের।

তাই হয়তো বিশ্বকাপের সময় ফের ছবি ভাইরাল নিয়ে তাই হয়তো বিচলিত হননি 'অভ্যস্ত' কোলিন্দা। বরং জাতীয় দলের সাফল্যে উচ্ছ্বসিত হয়ে প্রোটোকল দূরে সরিয়ে রুশ প্রাইম মিনিস্টার দিমিত্রি মেদভেদেভের সামনেই নেচে উঠেছিলেন ৫০ বছর বয়সী কোলিন্দা। ইন্টারনেটের সৌজন্যে যে নাচ হু হু করে ভাইরাল হয়েছে। আর বিশ্বকাপ ফাইনালের পুরস্কার বিতরণী মঞ্চে সবাইকে জড়িয়ে ধরে আপন করে নেন ক্রোয়োশিয়ার রাষ্ট্রপ্রধান। আসলে রাশিয়া বিশ্বকাপের 'সুপারফ্যান' হিসেবে ইতিমধ্যে ফুটবল বিশ্বের হৃদয়ে জায়গা করে নিয়েছেন কোলিন্দা।