Inzamam-ul-Haq: সফল অ্যাঞ্জিওপ্লাস্টি, ছাড়া পেলেন Inzamam, Sachin,Azhar-এর প্রার্থনা

অ্যাঞ্জিওপ্লাস্টির পর সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরে গেলেন ইনজামাম উল হক।  

Updated By: Sep 28, 2021, 05:21 PM IST
Inzamam-ul-Haq: সফল অ্যাঞ্জিওপ্লাস্টি, ছাড়া পেলেন Inzamam, Sachin,Azhar-এর প্রার্থনা
ভাল আছেন ইনজামাম উল হক। ফাইল চিত্র

নিজস্ব প্রতিবেদন: অবশেষে স্বস্তি পেলেন ইনজামাম উল হক (Inzamam-ul-Haq) ও তাঁর পরিবার। হৃদরোগে আক্রান্ত (Heart attack) হওয়ার জন্য সোমবার সকালে তাঁকে লাহোরের হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল। সেখানে পাকিস্তানের (Pakistan) প্রাক্তন অধিনায়কের অ্যাঞ্জিওপ্লাস্টিও করা হয়। প্রতিবেশী দেশের স্থানীয় সংবাদ মাধ্যমের দাবি এ দিন সফল অস্ত্রোপচারের পর তাঁকে দুপুরের দিকে হাসপাতাল থেকে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। তবে আপাতত তাঁকে কয়েকদিন তাঁকে বিশ্রামে থাকতে হবে।   

মাঠ ও মাঠের বাইরে দুই চিরপ্রতিদ্বন্দ্বি দেশের সংঘাত লেগেই আছে। তবে নিখাদ বন্ধুত্ব যে রাজনৈতিক চাপানউতোরের সমীকরণ মানে না সেটা বুঝিয়ে দিলেন সচিন তেন্ডুলকর (Sachin Tendulkar) ও মহম্মদ আজহারউদ্দিন (Moahmmad Azharuddin)। প্রিয় 'ইনজি ভাই'-এর হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার খবর পেতেই ট্যুইটারে বন্ধুর জন্য প্রার্থনা করলেন ভারতীয় ক্রিকেটের দুই তারকা। 

আরও পড়ুন: Inzamam-ul-Haq: হৃদরোগে আক্রান্ত পাক কিংবদন্তি, করা হল অ্যাঞ্জিওপ্লাস্টি

সচিন ট্যুইটারে লিখেছেন, 'ইনজামাম তোমার দ্রুত সুস্থতা কামনা করি। মাঠে তুমি শান্ত থাকলেও সবসময় লড়াকু মানসিকতা বজায় রেখেছিলে। তাই আমার আশা তুমি এই কঠিন সময় শান্ত থেকে ফের একবার লড়াই করে এই যুদ্ধও জিতে যাবে।' আজহার লিখেছেন, 'ইনজি ভাইয়ের অ্যাঞ্জিওপ্লাস্টির খবরটা শোনার পর থেকে মন খারাপ হয়ে আছে। তবে ঈশ্বরের আশীর্বাদে তুমি দ্রুত সেরে ওঠো।' 

 

সকালের পাকিস্তানের সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে ইনজামামের ম্যানেজার বলেছিলেন, "গত তিন দিন ইনজি ভাই বুকে হালকা ব্যথা অনুভব করছিলেন। সেইজন্য তাঁর বেশ কয়েকটি টেস্টও করা হয়। চিকিৎসকরা জানান, চিন্তার কারণ নেই। গত কয়েকদিন ইনজামাম বাড়িতেই ছিলেন। কিন্তু সোমবার সন্ধ্যায় হঠাৎ বুকের ব্যথা বেড়ে যাওয়ায় তাঁকে তড়িঘড়ি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে পরীক্ষানিরীক্ষার পর জানা যায়, তাঁর হার্টে একটি ‘ব্লক’ রয়েছে। এর পরেই চিকিৎসকেরা অ্যাঞ্জিওপ্লাস্টি করার সিদ্ধান্ত নেন।" 

১৯৯২ সালে পাকিস্তানের বিশ্বকাপ জয়ের পর ক্রিকেট জগতে তিনি বিপুল জনপ্রিয়তা অর্জন করেন। এক দিনের ম্যাচে পাকিস্তানের সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক তিনি। ৩৭৫টি ম্যাচে তাঁর রয়েছে ১১,৭০১ রান। ১১৯টি টেস্ট ম্যাচ খেলে তাঁর রান ৮,৮২৯। 

২০০৭ সালের বিশ্বকাপের শেষে ইনজামাম আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসর নেন। এরপর তিনি পাকিস্তান দলের ব্যাটিং পরামর্শদাতা হিসেবে নিযুক্ত হয়েছিলেন। তাছাড়া আফগানিস্তানের প্রধান কোচও ছিলেন। ২০১৬ থেকে ২০১৯ পর্যন্ত ইনজামাম ছিলেন পাকিস্তান ক্রিকেটের মুখ্য নির্বাচক। তাঁর অসুস্থতায় স্বভাবতই চিন্তার ভাঁজ পড়েছে ক্রীড়ামহলে। তবে সফল অ্যাঞ্জিওপ্লাস্টির পর এখন ভাল আছেন তিনি। 

(Zee 24 Ghanta App দেশ, দুনিয়া, রাজ্য, কলকাতা, বিনোদন, খেলা, লাইফস্টাইল স্বাস্থ্য, প্রযুক্তির লেটেস্ট খবর পড়তে ডাউনলোড করুন Zee 24 Ghanta App)