আইপিএল স্পটফিক্সিং কেলেঙ্কারি: স্ক্যানারের তলায় ছয় বিখ্যাত ভারতীয় ক্রিকেটার

আইপিএল কেলেঙ্কারির পর্দা ফাঁসের বৃত্তান্ত বোধহয় আবহমান। যখনই মনে হয়, কেলেঙ্কারির সিলসিলা বোধহয় এই বার ইতি হল, তখনই প্যান্ডোরার বাক্স থেকে আরও কিছু, আরও মহা কলেবরে বার হয়ে আসে। আইপিএল কেলেঙ্কারির মহা লিস্টিটে এবার যোগ হল ছ`জন অতি বিখ্যাত ভারতীয় ক্রিকেটারের নাম। এই ছ`জনের মধ্যে পাঁচ জন একদা ভারতীয় জার্সিতে বিশ্ব কাঁপিয়েছেন। আর একজন এখনও ভারতীয় দলের বর্তমান দলের নিয়মিত সদস্য। এই ছ`জনের নামেই আইপিএল স্পট ফিক্সিং-এ জড়িত থাকার অভিযোগ উঠেছে। সোমবার আইপিএল বেটিং ও স্পট ফিক্সিং নিয়ে সুপ্রিম কোর্টের বিশেষ তদন্ত কমিটি যে রিপোর্ট পেশ করেছে সেই রিপোর্টেই আছে সেই ছ`জনের নাম।

Updated By: Feb 11, 2014, 01:06 PM IST

আইপিএল কেলেঙ্কারির পর্দা ফাঁসের বৃত্তান্ত বোধহয় আবহমান। যখনই মনে হয়, কেলেঙ্কারির সিলসিলা বোধহয় এই বার ইতি হল, তখনই প্যান্ডোরার বাক্স থেকে আরও কিছু, আরও মহা কলেবরে বার হয়ে আসে। আইপিএল কেলেঙ্কারির মহা লিস্টিটে এবার যোগ হল ছ`জন অতি বিখ্যাত ভারতীয় ক্রিকেটারের নাম। এই ছ`জনের মধ্যে পাঁচ জন একদা ভারতীয় জার্সিতে বিশ্ব কাঁপিয়েছেন। আর একজন এখনও ভারতীয় দলের বর্তমান দলের নিয়মিত সদস্য। এই ছ`জনের নামেই আইপিএল স্পট ফিক্সিং-এ জড়িত থাকার অভিযোগ উঠেছে। সোমবার আইপিএল বেটিং ও স্পট ফিক্সিং নিয়ে সুপ্রিম কোর্টের বিশেষ তদন্ত কমিটি যে রিপোর্ট পেশ করেছে সেই রিপোর্টেই আছে সেই ছ`জনের নাম।

শীর্ষ আদালতের তিন সদস্যের তদন্ত কমিটির রিপোর্ট অনুযায়ী প্রাক্তন বোর্ড প্রেসিডেন্ট আই এস বৃন্দা তাঁর জবানবন্দীতে দু`জন প্রাক্তন ভারতীয় ক্রিকেটারের বিরুদ্ধে ম্যাচ ফিক্সিংয়ের অভিযোগ এনেছেন।

যদিও ক্রিকেটারদের নাম মুখ বন্ধ খামে আপাতত শীর্ষ আদালতের দখলে। ফলে অভিযুক্ত ক্রিকেটারদের নাম জানার উপায় বর্তমানে নেই।

একটি ক্রীড়া ম্যাগাজিনের সাংবাদিক যিনি স্পট ফিক্সিং সংক্রান্ত একটি টেপ রেকর্ডিংয়ের সঙ্গে জড়িত, তিনি অভিযুক্ত একজনের গলা তিনি চিনতে পেরেছেন। ওই সাংবাদিক দাবি করেছেন ওই ক্রিকেটার বিশ্বকাপ জয়ী ভারতীয় দলের সদস্য ছিলেন এবং অধুনা ভারতীয় দলেরও সদস্য।

সুপ্রিমকোর্টে পেশ করা রিপোর্ট অনুযায়ী ওই সাংবাদিক প্রথমদিকে অভিযুক্ত ক্রিকেটারদের নাম ফাঁস করতে চাননি। বহু অনুরোধের পর একজনের নাম জানিয়েছেন। ভীত, সন্ত্রস্ত ওই সাংবাদিক বারবার অনুরোধ করেছেন কোনও ভাবেই তাঁর পরিচয় যেন সর্বসমক্ষে না আসে।