ইডেনে লক্ষ্মণের ২৮১ রানের ইনিংস বাঁচিয়ে দিয়েছিল আমার কেরিয়ার, বললেন সৌরভ

১৭১ রানে টেস্ট জিতে স্টিভ ওয়ার অশ্বমেধের ঘোড়া থামিয়ে দেন সৌরভ গাঙ্গুলির নেতৃত্বাধীন ভারত।   

Sukhendu Sarkar | Updated: Dec 13, 2018, 09:33 AM IST
ইডেনে লক্ষ্মণের ২৮১ রানের ইনিংস বাঁচিয়ে দিয়েছিল আমার কেরিয়ার, বললেন সৌরভ

নিজস্ব প্রতিবেদন : ২০০১ সালে ইডেন গার্ডেন্সে অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে ভিভিএস লক্ষ্মণের ২৮১ রানের ইনিংস আজও ভারতীয় ক্রিকেটের ইতিহাসে স্বমহিমায় জ্বলজ্বল করছে। ক্রিকেটের নন্দনকাননে ভেরি ভেরি স্পেশাল লক্ষ্মণের সেই স্পেশাল ইনিংসটাই নাকি তাঁর কেরিয়ারকে বাঁচিয়ে দিয়েছিল। বুধবার প্রকাশ্যে বলেই দিলেন প্রাক্তন ভারত অধিনায়ক সৌরভ গাঙ্গুলি।

আরও পড়ুন - পারথ টেস্টে কি দলে ফিরছেন পৃথ্বী?

২০০১ সালে ম্যাচ গড়াপেটায় জেরবার ভারতীয় ক্রিকেটের গৌরর ফিরিয়ে আনার দায়িত্বটা নিজের কাঁধেই তুলে নিয়েছিলেন সৌরভ। ভারতীয় দলের নেতৃত্ব তখন সৌরভ। স্টিভ ওয়ার অস্ট্রেলিয়া তখন দুরন্ত ফর্মে। ভারত সফরে মুম্বইয়ে প্রথম টেস্ট জিতে ছুটে চলেছে ওয়ার অশ্বমেধের ঘোড়া। টানা ১৬ টেস্ট জিতে আসা স্টিভের ঘোড়া থামান সেই সৌরভের ভারতই। ইডেন গার্ডেন্সে দ্বিতীয় টেস্টে ফলো অন করতে নেমে দ্বিতীয় ইনিংসে লক্ষ্মণের ২৮১ এবং রাহুল দ্রাবিড়ের ১৮০ রান, পঞ্চম উইকেটে ৩৭৬ রানের পার্টনারশিপ, বাকিটা ইতিহাস। ১৭১ রানে টেস্ট জিতে স্টিভ ওয়ার অশ্বমেধের ঘোড়া থামিয়ে দেন সৌরভ গাঙ্গুলির নেতৃত্বাধীন ভারত।   

আরও পড়ুন - ধোনিকেই সাফল্যের কৃতিত্ব দিচ্ছেন ঋষভ পন্থ

বুধবার কলকাতায় লক্ষ্ণণের আত্মজীবনী '281 and Beyond' প্রকাশ অনুষ্ঠানে সৌরভ বলেই ফেলেন যে বইয়ের নামকরণ ঠিক হয়নি।  বইটার নাম হওয়া উচিত ছিল '281 and beyond and that saved Sourav Ganguly's career'। এমন কথা কেন বললেন সৌরভ তারও ব্যাখ্যা তিনি দিয়েছেন। এপ্রসঙ্গে মহারাজ বলেন, "মাস খানেক আগে ওকে(লক্ষ্ণণ) আমি মেসেজ করি। যদিও তার কোনও উত্তর দেয়নি। আমি লিখেছিলাম আত্মজীবনীর টাইটেল ঠিক হয়নি। হওয়া উচিত ছিল ২৮১ অ্যান্ড বিয়ন্ড অ্যান্ড দ্যাট সেভড সৌরভ গাঙ্গুলিস কেরিয়ার। আমি এরকম বলছি কারণ, লক্ষ্মণ যদি ইডেনে ২৮১ রানের ইনিংসটা না খেলত, তাহলে আমরা টেস্টটা হেরে যেতাম। এমনকী টেস্ট সিরিজও হারতাম। আর তাহলেই আমি অধিনায়কত্ব হারাতাম।"  তবে ২০০৩ সালের বিশ্বকাপ দল থেকে লক্ষ্ণণের বাদ পড়া প্রসঙ্গে সৌরভ স্বীকার করে নেন, "হয়তো এটা একটা ভুল সিদ্ধান্ত ছিল। অধিনায়ক হিসেবে আপনি অনেক সময় অনেক সিদ্ধান্তই নিয়ে থাকেন, যার কিছু ঠিক নাও হতে পারে।"