সচিনের রিওতে যাওয়ার পিছনে কারণ কী তাহলে এই?

দু'দিন আগে নিজের ফেসবুক পেজে একটা ছবি পোস্ট করেছেন। রিও ডি জেনিরোর প্রতীক ক্রাইস্ট দ্য রিডিমারের সামনে দু'হাত ছড়িয়ে পোজ দিচ্ছেন সচিন তেন্ডুলকর। ক্রিকেট কিংবদন্তি যে রিও অলিম্পিকের উৎসবে যোগ দিয়েছেন, সেটা তো বোঝাই গিয়েছে। কিন্তু তেন্ডুলকরের অলিম্পিক-ভ্রমণ কি শুধুই দেশকে অনুপ্রেরণা দেওয়ার জন্য, নাকি ক্রিকেটের দূতের কাজও করবেন?

Updated By: Aug 7, 2016, 06:47 PM IST
সচিনের রিওতে যাওয়ার পিছনে কারণ কী তাহলে এই?

ওয়েব ডেস্ক: দু'দিন আগে নিজের ফেসবুক পেজে একটা ছবি পোস্ট করেছেন। রিও ডি জেনিরোর প্রতীক ক্রাইস্ট দ্য রিডিমারের সামনে দু'হাত ছড়িয়ে পোজ দিচ্ছেন সচিন তেন্ডুলকর। ক্রিকেট কিংবদন্তি যে রিও অলিম্পিকের উৎসবে যোগ দিয়েছেন, সেটা তো বোঝাই গিয়েছে। কিন্তু তেন্ডুলকরের অলিম্পিক-ভ্রমণ কি শুধুই দেশকে অনুপ্রেরণা দেওয়ার জন্য, নাকি ক্রিকেটের দূতের কাজও করবেন?

আরও পড়ুন বুর্জ খলিফাকে ছাপিয়ে আরও দ্বিগুণ উঁচু হচ্ছে জাপানের বাড়ি!
 
প্রশ্নটা উঠছে শনিবারের একটা ঘটনায়। ১৯২৪ সালের পর অলিম্পিকে আবার ফিরেছে রাগবি। সেই রাগবি মাঠেই দেখা গেছে তেন্ডুলকরকে। কিন্তু এই খেলায় তো ভারত নেই, তেন্ডুলকর কি শুধুই দর্শক হিসেবে গিয়েছেন? বিশ্ব রাগবির প্রধান ব্রেট গসপারের কথা কিন্তু একটু অন্য রকম ইঙ্গিত দিচ্ছে। ব্রেট গসপারের বাবা কেভান গসপার একসময় আইওসির সহসভাপতি ছিলেন। তেন্ডুলকরের সঙ্গে তিনিও ছিলেন রাগবি মাঠে। অলিম্পিকে ক্রিকেটের সম্ভাবনা দেখতে পাচ্ছেন অস্ট্রেলিয়ার প্রাক্তন এই দৌড়বিদও। তিনি বলেন, 'ক্রিকেট অলিম্পিকের জন্যও ভালো হবে। ভারতের দর্শকরা অলিম্পিকে আরও আকৃষ্ট হবে, তাঁদের সংখ্যাও কম নয়!' রাগবির সঙ্গে এবার অলিম্পিকে ফিরেছে গলফ। ২০২০-র টোকিও অলিম্পিকে থাকছে বেসবল ও সফটবলও। কিন্তু ক্রিকেট এখনও অনুপস্থিত। তেন্ডুলকর কি ক্রিকেটকে বিশ্বক্রীড়ার সবচেয়ে বড় আসরে ফিরিয়ে আনতে রিওতে পা রেখেছেন? গসপারের কথায় সেই ইঙ্গিত কিছুটা পাওয়া যাচ্ছে।

আরও পড়ুন  এই প্রথম দেশেই নিষিদ্ধ হয়ে গেল পোকেমন গো!