মেয়াদ বৃদ্ধি না ছাড়তে হবে পদ? সুপ্রিম কোর্টে সৌরভ-জয়ের ভাগ্য নির্ধারণ আগামী বুধবার

লোধা কমিটির সংস্কার অনুযায়ী, রাজ্য ক্রিকেট সংস্থা বা বোর্ডে কিংবা দুটো মিলিয়ে টানা ৬ বছর পদাধিকারী থাকলে তাঁকে বাধ্যতামূলকভাবে তিন বছরের জন্য কুলিং অফে যেতে হবে।

Edited By: সুখেন্দু সরকার | Updated By: Dec 2, 2020, 10:38 PM IST
 মেয়াদ বৃদ্ধি না ছাড়তে হবে পদ? সুপ্রিম কোর্টে সৌরভ-জয়ের ভাগ্য নির্ধারণ আগামী বুধবার
ফাইল ছবি

নিজস্ব প্রতিবেদন: বিসিসিআই সভাপতি হিসেবে সৌরভের মেয়াদ কি বাড়বে? নাকি লোধা কমিশনের সুপারিশ মেনে  কুলিং অফে যেতে হবে তাঁকে? বিসিসিআই প্রেসিডেন্ট সৌরভ গাঙ্গুলি আর সচিব জয় শাহের ভাগ্য নির্ধারণ হতে পারে ৯ ডিসেম্বর।

বিচারপতি নাগেশ্বর রাওয়ের নেতৃত্বাধীন তিন সদস্যের বেঞ্চ জানিয়েছেন, বোর্ড প্রেসিডেন্ট সৌরভ গাঙ্গুলি আর সচিব জয় শাহের মেয়াদ বৃদ্ধি সংক্রান্ত মামলার চূড়ান্ত শুনানি হবে ৯ ডিসেম্বর।

লোধা কমিটির সংস্কার অনুযায়ী, রাজ্য ক্রিকেট সংস্থা বা বোর্ডে কিংবা দুটো মিলিয়ে টানা ৬ বছর পদাধিকারী থাকলে তাঁকে বাধ্যতামূলকভাবে তিন বছরের জন্য কুলিং অফে যেতে হবে। বর্তমান বোর্ড সভাপতি আর সচিব দু'জনের ক্ষেত্রেই রাজ্য ক্রিকেট সংস্থা আর বিসিসিআই মিলিয়ে পদাধিকারী পদে ৬ বছরের মেয়াদ শেষ হয়ে গিয়েছে। বোর্ড সচিব হিসেবে জয় শাহের মেয়াদ শেষ হয়েছে ৭ মে, ২০২০। অন্যদিকে সৌরভের মেয়াদ শেষ হয়েছে ২৭ জুলাই,২০২০।

২১ এপ্রিল বোর্ডের তরফ থেকে সুপ্রিম কোর্টে আবেদন করা হয় যে ভারতীয় ক্রিকেটের ভবিষ্যতের কথা মাথায় রেখে সৌরভদের যেন  কুলিং অফে পাঠানো না হয়। বোর্ড সভাপতি আর সচিবের মেয়াদ যেন ২০২৫ সাল পর্যন্ত বাড়ানো হয়।

২২ জুলাই সুপ্রিম কোর্টে দেশের প্রধান বিচারপতি শরদ অরবিন্দ বোরদে ও বিচারপতি এল নাগেশ্বর রাওয়ের ডিভিশন বেঞ্চ বোর্ডের আবেদন গ্রহণ করে। তারপর থেকে দেশের শীর্ষ আদালতে ঝুলে রয়েছে  সৌরভ গাঙ্গুলি আর জয় শাহের ভবিষ্যৎ। মেয়াদ বৃদ্ধি নাকি ছাড়তে হবে পদ? সুপ্রিম কোর্টে সৌরভ-জয়ের ভাগ্য নির্ধারণ আগামী বুধবার।

আরও পড়ুন- রোহিতের চোট বিতর্কে দায় এড়িয়ে যেতে পারেন না শাস্ত্রী, কটাক্ষ গম্ভীরের