অস্ট্রেলিয়ায় মাস্ক ছাড়া শপিং করে বিপাকে Virat Kohli-Hardik Pandya,কোভিড বিধি ভঙ্গের অভিযোগ

ভারতীয় দল সূত্রে জানা যাচ্ছে, রোহিতরা সমস্ত নিয়ম-কানুন মেনেই রেস্তোরাঁয় গিয়েছিলেন। রেস্তোঁরায় তাঁরা কারও সংস্পর্শে আসেননি। কাউকে জড়িয়ে ধরেননি।

Edited By: সুখেন্দু সরকার | Updated By: Jan 3, 2021, 10:58 PM IST
অস্ট্রেলিয়ায় মাস্ক ছাড়া শপিং করে বিপাকে Virat Kohli-Hardik Pandya,কোভিড বিধি ভঙ্গের অভিযোগ
ছবি সৌজন্যে: ইনস্টাগ্রাম

নিজস্ব প্রতিবেদন:  নতুন বছরের প্রথম দিনে  ভারতীয় দলের পাঁচ ক্রিকেটার মেলবোর্নের রেস্তোরাঁয় লাঞ্চ সারতে গিয়ে বিপাকে পড়ে গিয়েছেন। রোহিত শর্মা, ঋষভ পন্থ, শুভমান গিল, পৃথ্বী শ এবং নভদীপ সাইনি-এই পাঁচ ক্রিকেটারের বিরুদ্ধে প্রথমে জৈব সুরক্ষা বলয়ের নিয়ম ভাঙার অভিযোগ তুলেছে অজি মিডিয়া। অজি মিডিয়া ব্যাপারটার পিছনে আদা-জল খেয়ে লেগে পড়ে। এই খবরে হইচই পড়তে না পড়তেই কোভিড বিধি ভঙ্গের গুরুতর অভিযোগ উঠল ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহলি এবং হার্দিক পাণ্ডিয়ার বিরুদ্ধে। ভারতে ফিরে আসার আগে সিরিজ চলাকালীন ডিসেম্বর মাসের গোড়ার দিকে না কি ডনের দেশে কোভিড প্রোটোকল ভেঙেছেন বিরাট-হার্দিক! এমনই তথ্য সামনে আনছে smh.com.au ।

 

smh.com.au-এর রিপোর্ট অনুযায়ী ৭ ডিসেম্বর, ২০২০ মাস্ক ছাড়া একটি বেবি শপে দেখা যায় বিরাট কোহলি এবং হার্দিক পাণ্ডিয়াকে। জানুয়ারি মাসেই বিরাট-অনুষ্কার সংসারে আসছে নতুন অতিথি। অন্যদিকে আইপিএলের আগেই বাবা হয়েছেন হার্দিক পাণ্ডিয়া। এই ছবি প্রকাশ্যে আসতেই বিরাট কোহলি- হার্দিক পাণ্ডিয়ার বিরুদ্ধে কোভিড প্রোটোকল ভঙ্গের বড়সড়় অভিযোগ সামনে উঠে আসছে। ওয়ান ডে এবং টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলেই দেশে ফিরে এসেছেন হার্দিক পাণ্ডিয়া। অন্যদিকে অ্যাডিলেডে প্রথম টেস্ট খেলেই পিতৃত্বকালীন ছুটি নিয়ে দেশে ফিরে এসেছেন বিরাট কোহলি।

আরও পড়ুন - ISL 2020-21: জয় দিয়ে বছর শুরু সবুজ-মেরুনের, লিগ শীর্ষে  ATK Mohun Bagan  

এদিকে রোহিত শর্মা, ঋষভ পন্থ, শুভমান গিল, পৃথ্বী শ এবং নভদীপ সাইনি-এই পাঁচ ক্রিকেটারকে আইসোলেশন-এ পাঠানো হয়। অনুশীলনে তাঁরা অন্য ক্রিকেটারদের সংস্পর্শে আসবেন না। এমনকী সফরও করবেন অন্যদের থেকে আলাদা হয়ে। তবে ভারতীয় বোর্ড ও ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া তদন্ত করে দেখছে, এই পাঁচ ক্রিকেটার সত্যিই কোভিড প্রোটোকল ভেঙেছেন কি না!

ভারতীয় দল সূত্রে জানা যাচ্ছে, রোহিতরা সমস্ত নিয়ম-কানুন মেনেই রেস্তোরাঁয় গিয়েছিলেন। রেস্তোঁরায় তাঁরা কারও সংস্পর্শে আসেননি। কাউকে জড়িয়ে ধরেননি। এমনকী চেয়ারে বসার আগে স্যানিটাইজেশন হয়েছিল। ফলে অকারণে গুজব ছড়িয়েছে।

আরও পড়ুন - ISL 2020-21: জয় দিয়েই নতুন বছর শুরু  SC East Bengal-এর