দু'শোর গণ্ডিতে এবি-সৌরভ-সচিনের থেকে সেরা বিরাট,(পরিসংখ্যান)

Updated By: Oct 25, 2017, 11:31 AM IST
দু'শোর গণ্ডিতে এবি-সৌরভ-সচিনের থেকে সেরা বিরাট,(পরিসংখ্যান)

নিজস্ব প্রতিবেদন : মুম্বইতে নিউ জিল্যান্ডের বিরুদ্ধে সিরিজের প্রথম একদিনের ম্যাচে হেরে গিয়েছে ভারত। কিন্তু, সেই ম্যাচেও বিরাট কোহলির সেঞ্চুরি গোটা বিশ্বের ক্রিকেটপ্রেমীদের কাছে আলোচনার বিষয়। নিজের ২০০ তম একদিনের ম্যাচ খেলতে নেমে দুর্দান্ত সেঞ্চুরি করেছিলেন যে! বিরাট কোহলি ছাড়া এই গ্রহে মাত্র একজন ক্রিকেটারই তাঁর ২০০ তম একদিনের ম্যাচে সেঞ্চুরি করেছেন। তিনি হলেন দক্ষিণ আফ্রিকার এবি ডিভিলিয়ার্স। নিজের ২০০ তম একদিনের ম্যাচে সেঞ্চুরি করে বিরাট কোহলি সেঞ্চুরির সংখ্যাতেও টপকে গিয়েছেন অস্ট্রেলিয়ার প্রাক্তন অধিনায়ক রিকি পন্টিংকে। বিরাটের সে়ঞ্চুরি সংখ্যা এখন ৩১টি। পন্টিংয়ের ৩০টি। বিরাটের আগে এখন রয়েছেন শুধুই সচিন তেন্ডুলকর। একদিনের ক্রিকেটে সচিনের সেঞ্চুরির সংখ্যা ৪৯। বিরাট কোহলি ২০০ তম একদিনের ম্যাচ খেলে ফেলার পর, অনেকক্ষেত্রেই তর্ক শুরু হয়ে গিয়েছে যে, আধুনিক ক্রিকেটে সেরা ব্যাটসম্যান কে? সংখ্যাতত্ব কিন্তু, অনেকক্ষেত্রেই এগিয়ে রাখছে বর্তমান ভারতীয় অধিনায়ককে। দেখুন তার প্রমাণ।

আরও পড়ুন দলে কোনও মুসলিম ক্রিকেটার নেই কেন? মুখের মতো জবাব ভাজ্জির

১) ২০০ একদিনের ম্যাচ খেলে ফেলার পর বিরাট কোহলির মোট রান ৮৮৮৮। গড় ৫৫.৫৫ এবং স্ট্রাইক রেট ৯১.৫৪। সেঞ্চুরি ৩১ টা। না, ২০০ একদিনের ম্যাচ খেলার পর বিশ্বের আরও কোনও ব্যাটসম্যানেরই পারফরম্যান্সের পরিসংখ্যান বিরাটের থেকে ভাল নয়।

২) ২০০ একদিনের ম্যাচ খেলার পর এবি ডিভিলিয়ার্সের পারফরম্যান্স কেমন ছিল? ২০০ একদিনের ম্যাচ খেলার পর এবি-র মোট রান ছিল ৮৬২১। গড় ছিল ৫৪.৫৬। আর এবি-র সেঞ্চুরির সংখ্যা মাত্র ২৪! বিরাটের থেকে ৭ টা কম।

৩) এবার দেখে নেওয়া যাক, ২০০ একদিনের ম্যাচ খেলার পর ভারতের প্রাক্তন অধিনায়ক সৌরভ গাঙ্গুলির পারফরম্যান্স কেমন ছিল। সৌরভের রান ছিল ৭৭৪৭। গড় ছিল ৪৩.০৩। আর সৌরভের সেঞ্চুরির সংখ্যা ছিল, ১৮টি।

৪) ২০০ একদিনের ম্যাচ খেলার পর সচিন তেন্ডুলকরের রান ছিল ৭৩০৩। ব্রায়ান লারা ২০০ একদিনের ম্যাচ খেলে করেছিলেন ৭৩৭০ রান। তাই পরিসংখ্যান কিন্তু বলছে, বিরাট বাকিদের থেকে অনেকটাই এগিয়ে।

আরও পড়ুন  বিরাট নিজেকে বদলায়নি বরং, ওর জন্যই বদলে গিয়েছে অন্যরা, বললেন সচিন