WT20: পাঁচ উইকেট নিয়ে রেকর্ড Mujeeb-এর, অনবদ্য Rashid,উড়ে গেল Sctoland

বাইশ গজে নতুন কীর্তি গড়লেন মুজিব উর রহমান। 

Updated By: Oct 25, 2021, 11:54 PM IST
WT20: পাঁচ উইকেট নিয়ে রেকর্ড Mujeeb-এর, অনবদ্য Rashid,উড়ে গেল Sctoland
উইকেট নেওয়ার পর মুজিবের উচ্ছ্বাস। ছবি: টুইটার

নিজস্ব প্রতিবেদন: টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ (WT20) শুরু হওয়ার আগেই রশিদ খান (Rashid Khan) বলেছিলেন মরু দেশের স্লো পিচে স্পিনাররা বাজিমাত করবেন। শারজা, দুবাই, আবুধাবি কিংবা ওমান, সব পিচই হবে স্পিনারদের স্বর্গরাজ্য। আর ঠিক সেটাই ঘটল। সোমবার স্কটল্যান্ডকে একাই বুঝে নিলেন মুজিব উর রহমান (Mujeeb Ur Rahman)। পাঁচ উইকেট নিয়ে রেকর্ড গড়ার সঙ্গে রশিদ নিলেন ৪ উইকেট। মুজিব হলেন প্রথম আফগান ক্রিকেটার হিসেবে যিনি বিশ্বকাপের (একদিনের ও টি-টোয়েন্টি) ইতিহাসে ইনিংসে ৫ উইকেট নেওয়ার কৃতিত্ব অর্জন করলেন। ফলে বিপক্ষের বিরুদ্ধে ১৩০ রানের বড় জয় পেয়ে অভিযান শুরু করল তালিবান শাসিত আফগানিস্তান (Afghanistan)। 

দীর্ঘ ২০ বছর পরে দেশে তালিবানি রাজত্ব শুরু হওয়ার জন্য একটা সময় টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে অংশ নেওয়া নিয়ে তীব্র অনিশ্চয়তা তৈরি হয়েছিল। তবে সেই প্রতিকুলতা ও নেতিবাচক দিক ভুলে এ দিন শারজার বাইশ গজে দাপিয়ে বেড়ালেন এগারো জন আফগান। টস জিতে প্রথমে ব্যাট করতে নামে আফগানিস্তান। নির্ধারিত ২০ ওভারে ৪ উইকেটে ১৯০ রান তোলে। নাজিবুল্লাহ জাদরান মাত্র ৩৪ বলে সর্বোচ্চ ৫৯ রান করেন। মারেন ৫টি চার ও ৩টি ছয়। বাঁহাতি ওপেনার হজরত উল্লাহ জাজাই ৩০ বলে ৪৪ ও আর এক ওপেনার মহম্মদ শেহজাদ ১৫ বলে ২২ করেন। তিন নম্বরে ব্যাট করতে নামা রহমানুল্লাহ গুরবাজ ৩৭ বলে ৪৬ রান করেছেন। 

আরও পড়ুন: WT20, IND vs PAK: এ বার Mohammed Shami-র পাশে দাঁড়িয়ে প্রতিবাদে মুখর Sachin Tendulkar

 

জবাবে ব্যাট করতে নেমে মুজিব ও রশিদের স্পিনের ছোবলে মাত্র ৬০ রানে গুটিয়ে যায় স্কটিশদের ইনিংস।  টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ইতিহাসে এটি যুগ্মভাবে চতুর্থ নিম্নতম দলগত ইনিংস। এর আগে ২০১৪ সালে চট্টগ্রামে শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে নিউজিল্যান্ড ৬০ রানে অল আউট হয়ে গিয়েছিল। চতুর্থ ওভারে বিপক্ষের তিন উইকেট তুলে বড় ধাক্কা দিয়েছিলেন ২০ বছরের এই অফ স্পিনার।  এ দিন হ্যাটট্রিকও সেরে ফেলতে পারতেন। তবে অল্পের জন্য সেটা হল না। দুই স্পিনারের চাপে স্কটল্যান্ডের পাঁচ জন ব্যাটার খালি হাতে ডাগ আউটে ফিরে যান। 

মুজিব উর রহমান ৪ ওভারে ২০ রানে ৫টি উইকেট নিয়েছেন। ২.২ ওভারে মাত্র ৯ রান দিয়ে বিনিময়ে ৪টি উইকেট নিলেন রশিদ। এমন রেকর্ড গড়া পারফরম্যান্সের জন্য ম্যাচের সেরা হয়েছেন মুজিব।