২৪ জনের মধ্যে ১৯ জন করোনা আক্রান্ত, বন্ধ হয়ে গেল বাঁকুড়ার স্টেট ব্যাঙ্কের প্রধান শাখা

করোনা বড়সড় থাবা বসাল বাঁকুড়ার মাচানতলা এলাকার স্টেট ব্যাঙ্কের প্রধান শাখায়। ২৪ জন কর্মীর মধ্যে ১৯ জন কর্মী করোনায় আক্রান্ত। দু দিনের জন্য বন্ধ হয়ে গেল বাঁকুড়ার স্টেট ব্যাঙ্কের  প্রধান শাখা ।

Updated By: Aug 13, 2020, 04:11 PM IST
২৪ জনের মধ্যে ১৯ জন করোনা আক্রান্ত,  বন্ধ হয়ে গেল বাঁকুড়ার স্টেট ব্যাঙ্কের প্রধান শাখা
নিজস্ব চিত্র

নিজস্ব প্রতিবেদন: করোনা বড়সড় থাবা বসাল বাঁকুড়ার মাচানতলা এলাকার স্টেট ব্যাঙ্কের প্রধান শাখায়। ২৪ জন কর্মীর মধ্যে ১৯ জন কর্মী করোনায় আক্রান্ত। দু দিনের জন্য বন্ধ হয়ে গেল বাঁকুড়ার স্টেট ব্যাঙ্কের  প্রধান শাখা ।

 দিন কয়েক আগে এই ব্যাঙ্কের কয়েকজন কর্মীর শরীরে হালকা জ্বরের উপসর্গ দেখা দেয়। এরপরই ওই ব্যাঙ্কের সমস্ত কর্মীর লালারসের নমুনা পরীক্ষার সিদ্ধান্ত নেন ব্যাঙ্কের ওই শাখার দায়িত্বপ্রাপ্ত আধিকারিকরা। এরপর স্বাস্থ্য দফতরের উদ্যোগে মঙ্গলবার ব্যাঙ্কের ওই শাখায় কর্মরত ২৪ জন কর্মীর লালারস সংগ্রহ করা হয়৷

 বুধবার সন্ধ্যায় ওই ২৪ জনের লালারসের নমুনা পরীক্ষার ফল ব্যাঙ্ক কর্তৃপক্ষের  হাতে আসে।

সেই বিপের্টে দেখা যায় ওই শাখায় কর্মরত ২৪ জন কর্মীর মধ্যে ১৯ জন করোনা পজিটিভ। এরপরই আক্রান্তদের হোম আইসোলেশনে পাঠানো হয়। প্রায় অধিকাংশ ব্যাঙ্ককর্মী করোনায় আক্রান্ত হওয়াতে ব্যাঙ্ক এবং ওই ব্যাঙ্কের গ্রাহকদের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে। ব্যাঙ্ককর্মীদের চিহ্নিত করা গেলেও গ্রাহকদের চিহ্নিত করা সম্ভব নয়।

আরও পড়ুন: প্রণব মুখোপাধ্যায়ের শারীরিক অবস্থা আপাতত স্থিতিশীল, জানালেন ছেলে অভিজিত্

তড়িঘড়ি ব্যাঙ্কের ওই শাখা বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।  বৃহস্পতিবার এবং শুক্রবার ব্যাঙ্ক বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে কর্তৃপক্ষ। শনিবার ১৫ অগস্ট । তাই টানা চারদিন বন্ধ থাকবে বাঁকুড়ার স্টেট ব্যাঙ্কের  প্রধান শাখা। ব্যাঙ্কের নিরাপত্তারক্ষী জানান, "অধিকাংশ কর্মীর করোনা পজেটিভ ধরা পড়ায় বুধবারউ তড়িঘড়ি ব্যাঙ্ক বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। দুদিন বন্ধ আর দুদিন ছুটি। এই চারদিন পুরো ব্যাঙ্ক স্যানিটাইজড করা হবে। বৃহস্পতিবার থেকেই স্যানিটাইজের কাজ শুরু হয়ে গেছে। " চারদিন পর পরিস্থিতি বুঝে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে ব্যাঙ্ক খোলা হবে কিনা।