বীরভূমে জঙ্গলের মধ্যে আদিবাসী মহিলাকে গণধর্ষণ ৩ যুবকের, দাঁড়িয়ে 'দেখল' আরও ৩

নির্যাতিতার ডাক্তারি পরীক্ষায় ধর্ষণের প্রমাণ মিলেছে।

Updated: Jul 12, 2018, 08:17 PM IST
বীরভূমে জঙ্গলের মধ্যে আদিবাসী মহিলাকে গণধর্ষণ ৩ যুবকের, দাঁড়িয়ে 'দেখল' আরও ৩

নিজস্ব প্রতিবেদন : বীরভূমে ফের আদিবাসী মহিলাকে গণধর্ষণ। বুধবার ঘটনাটি ঘটেছে মহম্মদবাজারের দুবনী গ্রামে। এই ঘটনায় গ্রেফতার করা হয়েছে তিন অভিযুক্তকে।

জানা গেছে, গতকাল বীরভূমের চোরিচার জঙ্গলে পাতা কুড়োতে গিয়েছিলেন ওই আদিবাসী মহিলা। দলে আরও অনেকেই ছিলেন। কিন্তু সেইসময়ই ৬ যুবক ওই আদিবাসী মহিলাকে টেনেহিঁচড়ে জঙ্গলের মধ্যে নিয়ে যায় বলে অভিযোগ। অভিযোগ, তারপর জঙ্গলেই মধ্যেই তাঁকে ধর্ষণ করে তিন যুবক। বাকিরা দাঁড়িয়ে থেকে ওই যুবকদের অপকর্মে 'পাহারা' দেয়।

পরে কাতরানোর আওয়াজ শুনে রক্তাক্ত অবস্থায় জঙ্গলের মধ্যে থেকে ওই মহিলাকে উদ্ধার করেন স্থানীয়রা। তারপরই এই ঘটনায় মহম্মদবাজার থানায় অভিযোগ দায়ের করেন নির্যাতিতা। অভিযোগের ভিত্তিতে নন্দ সোরেন, বাবু সোরেন ও বাবুলাল মুর্মু নামে তিন অভিযুক্তকে গ্রেফতার করে পুলিস।

আরও পড়ুন, ষাট বছরের বৃদ্ধাকে মদ খাইয়ে সংজ্ঞাহীন করে গণধর্ষণ এগরায়

পুলিস সূত্রে জানা গেছে, এদিন সকালে টিআই প্যারেডের সময় ধৃতদের সনাক্ত করেন নির্যাতিতা। এরপর ধৃত ৩ যুবককে আদালতে তোলা হলে বিচারক প্রত্যেককেই তিনদিনের পুলিস হেফাজতের নির্দেশ দেন। অন্যদিকে সিউড়ি সদর হাসপাতালে নির্যাতিতার ডাক্তারি পরীক্ষায় ধর্ষণের প্রমাণ মিলেছে।