close

News WrapGet Handpicked Stories from our editors directly to your mailbox

ষাট বছরের বৃদ্ধাকে মদ খাইয়ে সংজ্ঞাহীন করে গণধর্ষণ এগরায়

ঘটনার পর ৪দিন পেরিয়ে গেলেও এখনও দোষীদের কেউ গ্রেফতার হয়নি।

Updated: Jul 12, 2018, 07:36 PM IST
ষাট বছরের বৃদ্ধাকে মদ খাইয়ে সংজ্ঞাহীন করে গণধর্ষণ এগরায়

নিজস্ব প্রতিবেদন : ষাট বছরের বৃদ্ধাকে রাস্তা থেকে তুলে নিয়ে গিয়ে গণধর্ষণের অভিযোগ উঠল পূর্ব মেদিনীপুরের এগরাতে। অভিযোগ, তিন মদ্যপ যুবক প্রথমে ওই বৃদ্ধাকে জোর করে মদ খাওয়ায়। তারপর তাঁর উপর চলে নির্যাতন। পরে সংজ্ঞাহীন ও রক্তাক্ত অবস্থায় ওই বৃদ্ধাকে উদ্ধার করেন স্থানীয়রা। তবে অভিযুক্তরা এখনও পলাতক।

জানা গেছে, গত শনিবার রোজকার মতো গ্রামের রাস্তা ধরে বাড়ি ফিরছিলেন বছর ষাটেকের ওই বৃদ্ধা। রাস্তার ধারে বটগাছের তলায় বসে মদ্যপান করছিল খোকন সিং, বাড়ি ছেত্রী, অনন্ত সিং নামে তিন যুবক। অভিযোগ, বৃদ্ধা কাছে আসতেই তাঁর পথ আটকায় তিনজন। তারপর ওই বৃদ্ধাকে টেনে নিয়ে গিয়ে জোর করে মদ্যপান করায় তারা। এরপরই সংজ্ঞা হারান ওই বৃদ্ধা। সংজ্ঞাহীন অবস্থাতেই ওই তিন যুবক তাঁকে গণধর্ষণ করে বলে অভিযোগ নির্যাতিতার। তাঁর আরও অভিযোগ, জ্ঞান ফিরে এলে তিনি সবকথা জানিয়ে দেওয়ার হুমকি দেন। এরপরই অভিযুক্তরা ইট দিয়ে তাঁর মাথায় আঘাত করে। একইসঙ্গে আঘাত করা হয় তাঁর চোখেও। এরপর রক্তাক্ত অবস্থায় তাঁকে ফেলে রেখে উধাও হয়ে যায় তিন অভিযুক্ত।

আরও পড়ুন, কোন্নগর পুরসভার গেস্টহাউজে দেহ ব্যবসা, সিআইডি তল্লাশিতে ধৃত ৮ মহিলা-৪ পুরুষ

বৃদ্ধার গোঙানির আওয়াজ শুনে তাঁকে উদ্ধার করে পথচলচতি মানুষ। বাড়ি ফিরে সমস্ত কথা খুলে বলেন নির্যাতিতা। এরপরই এগরা থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়। কিন্তু ঘটনার পর ৪দিন পেরিয়ে গেলেও এখনও দোষীদের কেউ গ্রেফতার হয়নি। এই ঘটনায় এদিন থানায় বিক্ষোভ দেখায় বিভিন্ন সংগঠন। পুলিসের সঙ্গেও ধস্তাধস্তি বাধে। বর্তমানে আশঙ্কাজনক অবস্থায় মেদিনীপুর মেডিক্যাল কলেজে চিকিত্সাধীন রয়েছেন ওই বৃদ্ধা।