স্বামীর সঙ্গে যাচ্ছিলেন দোকানে, প্রকাশ্যে গৃহবধূর গলার নলি কেটে আত্মসমর্পণ প্রেমিকের

রকাশ্য রাস্তায় জেলাশাসকের দফতরের অদূরেই গলার নলি কেটে গৃহবধূকে খুন করলেন প্রেমিক। লকডাউনের বাজারে ত্রিকোণ প্রেমের মর্মান্তিক পরিণতি দেখন হুগলির চুঁচুড়ার বাসিন্দারা।

Updated By: May 8, 2020, 04:06 PM IST
স্বামীর সঙ্গে যাচ্ছিলেন দোকানে, প্রকাশ্যে গৃহবধূর গলার নলি কেটে আত্মসমর্পণ প্রেমিকের

নিজস্ব প্রতিবেদন: স্বামীর ঘর ছেড়ে প্রেমিকের কাছে গিয়েছিলেন। কিন্তু ফের মন পড়ে স্বামীর ওপরই। ফের লুকিয়ে দেখা করতে থাকেন। খবর পৌঁছে গিয়েছিল প্রেমিকের কানেও। শুক্রবার স্বামীর সঙ্গে লুকিয়ে জুতো কিনতে বেরিয়েছিলেন বছর চুয়াল্লিশের গৃহবধূ। প্রকাশ্য রাস্তায় জেলাশাসকের দফতরের অদূরেই গলার নলি কেটে গৃহবধূকে খুন করলেন প্রেমিক। লকডাউনের বাজারে ত্রিকোণ প্রেমের মর্মান্তিক পরিণতি দেখন হুগলির চুঁচুড়ার বাসিন্দারা।
বছর বিয়াল্লিশের ছবি দে মণ্ডল দুবছর আগে স্বামী ও দুই সন্তান ছেড়ে স্থানীয় যুবক তারকের সঙ্গে থাকতে শুরু করেন। কিছুদিন ধরে তারকের সঙ্গেও তাঁর সম্পর্কের অবনতি হয়। ফের স্বামীর সঙ্গে যোগাযোগ শুরু করেন তিনি। তা নিয়ে ফের তারকের সঙ্গে অশান্তি শুরু হয় ছবির।

রেশন চুরির অভিযোগে ফের উত্তেজনা নিমতায়, তালা ঝুলল দোকানে
শুক্রবার সকালে স্বামীর সঙ্গে ঘড়ির মোড়ে একটি জুতোর দোকানে যাচ্ছিলেন ছবি। তারক তা দেখতে পেয়ে যান। রাস্তায় আচমকাই পকেট থেকে একটি ছুরি বার করে ছবির গলার নলি কেটে দেয় তারক।
রক্তাক্ত অবস্থায় লুটিয়ে প়ড়েন ছবি। থানা থেকে ঢিল ছোড়া দূরত্বে ঘটে যায় ভয়ঙ্কর ঘটনা। ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় ছবির। স্থানীয়রা  আতঙ্কিত হয়ে পড়েন। ঘটনার পর থানায় গিয়ে আত্মসমর্পণ করেন তারক।