close

News WrapGet Handpicked Stories from our editors directly to your mailbox

চাওমিনে পেঁয়াজ নেই কেন? প্রশ্ন করায় বাবা-মেয়েকে বেধড়ক পেটাল দোকানদার

আহতরা হলেন শচীন রায় (৫৩) ও মেয়ে সুরভী রায় (২৭)। ঘটনার সূত্রে, জীবনতলা থানা ফেয়ারলি বাসিন্দা শচীন রায় ও তাঁর পরিবারকে নিয়ে প্রতিমা দেখতে আসেন ক্যানিংয়ে

Updated: Oct 9, 2019, 11:33 AM IST
চাওমিনে পেঁয়াজ নেই কেন? প্রশ্ন করায় বাবা-মেয়েকে বেধড়ক পেটাল দোকানদার
ফাইল চিত্র

নিজস্ব প্রতিবেদন: দামে চড়া পিয়াজ। আর চাওমিনের পেঁয়াজ চাওয়া নিয়ে বচসা। দোকানদারের মারে গুরুতর আহত ৩ খদ্দের। ঘটনাটি ঘটেছে, ক্যানিং থানার নবারুণ ক্লাবের পুজো মণ্ডপের সামনে।

আহতরা হলেন শচীন রায় (৫৩) ও মেয়ে সুরভী রায় (২৭)। ঘটনার সূত্রে, জীবনতলা থানা ফেয়ারলি বাসিন্দা শচীন রায় ও তাঁর পরিবারকে নিয়ে প্রতিমা দেখতে আসেন ক্যানিংয়ে। এরপর একটি চাওমিন দোকানে যান তাঁরা। পেঁয়াজের দাম অত্যাধিক হাওয়ায়, চাওমিনে পেঁয়াজ দেওয়া বন্ধ করে দেয় দোকানদার। আর সেই পেঁয়াজ চাইতে গেলেই শুরু হয় ধুন্ধুমার কাণ্ড। অভিযোগ ওঠে,  তরুণীকে চুলের মুঠি ধরে মারধর করে দোকানদার। আর মেয়েকে মারছে দেখে প্রতিবাদ করতে এগিয়ে আসে বাবা শচীন রায়। অভিযোগ, শচীনবাবুকে রাস্তায় ফেলে গরম খুন্তি দিয়ে এলোপাথাড়ি মারে কয়েকজন দোকানদার।

আরও পড়ুন- দশমী রাতে তরুণীকে শ্লীলতাহানি, প্রতিবাদে রায়গঞ্জ থানায় ‘তাণ্ডব’ তৃণমূল ছাত্র পরিষদের

রক্তাক্ত অবস্থায় শচীনবাবুকে তড়িঘড়ি আনা হয় ক্যানিং মহকুমা হাসপাতালে। বর্তমানে ক্যানিং মহকুমা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন তিনি। এ বিষয়ে ক্যানিং থানা একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করে আহতের পরিবার। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে ক্যানিং থানার পুলিস।