বাড়িতে আগে খাবার পাওয়ায় বোনের পেটে ছুরি ঢোকাল দাদা

 কাকা-জ্যাঠা, খুড়তুতো-জেঠতুতো ভাইবোনেদের সঙ্গে বেড়ে ওঠা জয়দেব রানার। পরিবারের দাবি, ছোটো বেলাতে স্বাভাবিক ছিল জয়দেবের হাবভাব। কিন্তু ইদানীং তাঁর মানসিকতার পরিবর্তন ঘটে।

Updated By: Mar 14, 2018, 12:18 PM IST
বাড়িতে আগে খাবার পাওয়ায় বোনের পেটে ছুরি ঢোকাল দাদা

নিজস্ব প্রতিবেদন:  ছোটোবেলা থেকে একসঙ্গে বড় হওয়া। একসঙ্গে পড়াশোনা-খেলাধুলো। কিন্তু বড় হওয়ার পর এইভাবে যে বদলে যাবে বাড়ির বড় ছেলের আচরণ, তা ভাবতে পারেননি কেউ। খেতে চেয়ে বোনের আগে খাবার না পাওয়ায় বোনের পেটেই ছুরি ঢুকিয়ে দিল দাদা। মর্মান্তিক ঘটনাটি ঘটেছে পূর্ব মেদিনীপুরের কাঁথির আঠিলাগড়ি গ্রামে।

আরও পড়ুন: ধড় থেকে ছিন্ন হয়ে গেল মুন্ডু, ভয়ঙ্কর দুর্ঘটনা উলুবেড়িয়ায়

প্রত্যন্ত গ্রামের ছোট্ট যৌথ পরিবার। কাকা-জ্যাঠা, খুড়তুতো-জেঠতুতো ভাইবোনেদের সঙ্গে বেড়ে ওঠা জয়দেব রানার। পরিবারের দাবি, ছোটো বেলাতে স্বাভাবিক ছিল জয়দেবের হাবভাব। কিন্তু ইদানীং তাঁর মানসিকতার পরিবর্তন ঘটে। জয়দেবের মনে একটা বদ্ধমূল ধারণা তৈরি হতে থাকে যে, পরিবারের বাকি সদস্যরা তাঁর বোনদেরকেই বেশি ভালোবাসে। রীতিমতো হীনমন্যতায় ভুগতে শুরু করেন জয়দেব। একাধিকবার তাঁর আচরণে বিষয়টির বহিঃপ্রকাশও হয়েছে বলে দাবি পরিবারের। কিন্তু বুধবার সকালে তা মাত্রা ছাড়ায়।

আরও পড়ুন:  টলিউডের কাজের নাম করে গাড়ি ভাড়া, ফাঁস হল আসল সত্য

বুধবার সকালে কাকিমার কাছে খেতে চান জয়দেব। তার কিছুক্ষণের মধ্যে খুড়তুতো বোনও খেতে চান। কাকিমা জয়দেবের আগে তাঁর বোনকে খেতে দেন। এতেই ক্ষেপে ওঠেন জয়দেব। কেউ কিছু বুঝে ওঠার আগেই একটি ধারালো ছুরি নিয়ে বোনের পেটে ঢুকিয়ে দেন।

আরও পড়ুন: বউমাকে অন্য পুরুষের সঙ্গে যৌনতায় লিপ্ত হতে বাধ্য করতেন শাশুড়ি

রক্তাক্ত অবস্থায় মাটিতে লুটিয়ে পড়েন জয়দেবের বোন। তাঁকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় কাঁথি মহকুমা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। ঘটনার পরই জয়দেবকে হাতনাতে ধরে ফেলে স্থানীয়রা। তাঁকে পুলিসের হাতে তুলে দেওয়া হয়েছে। তাঁর মানসিক অবস্থা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।