বাড়িতে ঢুকে অন্তঃসত্ত্বাকে গণধর্ষণ, আসানসোলে ভয়াবহ ঘটনা

ওই মহিলা  কয়েক মাসের অন্তঃসত্ত্বা। সেক্ষেত্রে  তাদেরকে বাধা দেওয়ার মতো ক্ষমতা ছিল না তাঁর। ঘরের জানলা দরজা সব বন্ধ থাকায়, মহিলার আর্তনাদও কেউ শুনতে পারেননি।

Updated: Oct 11, 2018, 02:26 PM IST
বাড়িতে ঢুকে অন্তঃসত্ত্বাকে গণধর্ষণ, আসানসোলে ভয়াবহ ঘটনা

নিজস্ব প্রতিবেদন:  ফাঁকা বাড়িতে ঢুকে অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূকে  ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে তিন যুবকের বিরুদ্ধে। ঘটনাটি ঘটেছে আসানসোলের উত্তর থানার উত্তর ধাদকার রেকেট কোলম্যান রোড এলাকায়।  

পুলিস ও স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, বুধবার সন্ধ্যায়  বাড়িতে একাই ছিলেন বছর তিরিশের ওই গৃহবধূ। তাঁর স্বামী কর্মসূত্রে বাইরে ছিলেন।  রাত আটটা নাগাদ কলিং বেল  বাজায় দরজা খোলেন তিনি।   তিনি ভেবেছিলেন তাঁর স্বামী এসেছে।  দরজা খুলে কাউকে প্রথমে দেখতে পান না তিনি।  ঘর থেকে বেরিয়ে এসে দেখার ফাঁকেই তিন যুবক ঘরে ঢুকে পড়ে বলে  অভিযোগ।

আরও পড়ুন: 'তিতলি'-র ঝাপটায় ভাসবে বঙ্গ!  কোথায় এখন ঘূর্ণিঝড়ের অবস্থান

ওই মহিলা  কয়েক মাসের অন্তঃসত্ত্বা। সেক্ষেত্রে  তাদেরকে বাধা দেওয়ার মতো ক্ষমতা ছিল না তাঁর। ঘরের জানলা দরজা সব বন্ধ থাকায়, মহিলার আর্তনাদও কেউ শুনতে পারেননি। ঘরের দরজা বন্ধ করে একে একে তিন যুবককে তাঁকে ধর্ষণ করে বলে অভিযোগ।

ঘটনার জেরে সংজ্ঞা হারান ওই মহিলা। কাজ থেকে ফিরে  স্ত্রীকে অচৈতন্য অবস্থায় খাটের ওপর পড়ে থাকতে দেখেন তাঁর স্বামী। প্রথমে আসানসোল উত্তর থানায় যান তাঁরা। কিন্তু সেখানে অভিযোগ নিতে অস্বীকার করে পুলিস। পরে সেখানে থেকে নির্যাতিতা ও তাঁর স্বামীকে পাঠিয়ে দেওয়া হয় মহিলা থানায়।  গোটা ঘটনা জানিয়ে থানায় তিন যুবকের বিরুদ্ধে গণধর্ষণের অভিযোগ দায়ের করেছেন নির্যাতিতা।

আরও পড়ুন: আগামী ৪৮ ঘণ্টায় ভারী বৃষ্টির সতর্কতা, বাতিল বহু ট্রেন, বদলে গেল সময়সূচি

নির্যাতিতার দাবি, অভিযুক্ত তিন জনের মধ্যে এক জনকে আগে থেকেই চেনেন তিনি। পুলিসের কাছে  তার চেহারার বর্ণনা দিয়েছেন তিনি।   অভিযুক্ত তিন জনই পলাতক। পুলিস তাদের খোঁজে তল্লাশি শুরু করেছে।  আসানসোল জেলা হাসপাতালে নির্যাতিতার মেডিক্যাল টেস্ট করানো হয়। আসানসোল জেলা আদালতে নির্যাতিতার জবানবন্দি নেওয়া হয়েছে।