রাজ্যের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠাগুলিতে লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে এবিভিপি-র শাখা সংখ্যা

বর্তমানে সদস্যসংখ্যা ৪০ হাজার, সেই সংখ্যা বাড়িয়ে দেড় লাখ করার টার্গেট নিয়েছে এবিভিপি।

Updated By: Jun 6, 2019, 03:13 PM IST
রাজ্যের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠাগুলিতে লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে এবিভিপি-র শাখা সংখ্যা

নিজস্ব প্রতিবেদন : বহরে বাড়ছে এবিভিপি।  ১৫ দিনে ২২টি নতুন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে নিজেদের শাখা খুলল অখিল ভারতীয় বিদ্যার্থী পরিষদ। লক্ষ্য ছুঁতে আর বেশি সময় লাগবে না বলেই মনে করছে আরএসএস-র ছাত্র সংগঠন।

লোকসভা ভোটের ফল বেরিয়েছে ২৩ মে। লোকসভা ভোটের ফল প্রকাশ হতেই বাংলায় বিজেপির বাড়বাড়ন্ত সবার চোখে পড়েছে। ২টি আসন থেকে একলাফে বিজেপির আসন সংখ্যা পৌঁছে গিয়েছে ১৮-এ। বাংলায় অক্সিজেন পেয়েছে বিজেপি। আর এবার পরবর্তী লক্ষ্য বিধানসভা ২০২১। তার আগে বাংলায় আরও শক্তিবৃদ্ধি করতে চায় আরএসএস-বিজেপি।

লোকসভা ভোটের ফল বেরনোর পর গোটা রাজ্যে ৫০০টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে শাখা খোলার টার্গেট নিয়েছে এবিভিপি। উল্লেখ্য, লোকসভা ভোটের ফল বেরনোর আগে পর্যন্ত রাজ্যে মেডিক্যাল, ইঞ্জিনিয়ারিং ও জেনারেল ডিগ্রি কলেজ মিলিয়ে মোট ১৬৩টি প্রতিষ্ঠানে এবিভিপি ইউনিট ছিল। ফল বেরনোর ১৫ দিনের মধ্যে ১২টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে নিজেদের শাখা খুলে সেই সংখ্যাকে ১৮৫-তে নিয়ে গিয়েছে এবিভিপি।

আরও পড়ুন, বিজেপির রাজ্য দফতরে যোগদানের হিড়িক! 

এখন রাজ্যের ৫০০টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শাখা খোলার লক্ষ্যমাত্রা নিয়েছে অখিল ভারতীয় বিদ্যার্থী পরিষদ। এই হারে শাখা খুললে জুন মাসের মধ্যে এবিভিপি  সেই সংখ্যার খুব কাছাকাছি পৌঁছে যাবে বলে মনে করছে ওয়াকিবহল মহল। বর্তমানে সংগঠনের সদস্য সংখ্যা ৪০ হাজার। সেই সংখ্যা বাড়িয়ে দেড় লাখ করার টার্গেট নিয়েছে এবিভিপি। পাশাপাশি যেসব কলেজে ইতিমধ্যেই এবিভিপি শাখা খুলতে সমর্থ হয়েছে, সেখানে ছাত্র সংসদ নির্বাচনের দাবিও জানিয়েছে আরএসএস-এর ছাত্র সংগঠন।