পিস্তল নিয়ে স্থানীয়দের ভয় দেখাচ্ছিল তৃণমূলকর্মী, আচমকাই গুলি ছুড়লেন প্রতিবেশী বিজেপি কর্মীকে!

ন্দন দে নামে ওই বিজেপি কর্মী আশঙ্কাজনক অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি। ঘটনায় স্থানীয় কাঠের ব্যবসায়ী বাপি রায়ের বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠেছে।

Updated By: Aug 14, 2019, 04:00 PM IST
পিস্তল নিয়ে স্থানীয়দের ভয় দেখাচ্ছিল তৃণমূলকর্মী, আচমকাই গুলি ছুড়লেন প্রতিবেশী বিজেপি কর্মীকে!

নিজস্ব প্রতিবেদন: কয়েক দিন ধরেই একটি পিস্তল জোগাড় করে স্থানীয়দের ভয় দেখানোর অভিযোগ উঠছিল এক তৃণমূল কর্মীর বিরুদ্ধে। এবার সেই পিস্তল দিয়েই এক বিজেপি কর্মীকে গুলি করার অভিযোগ উঠল তার বিরুদ্ধে। ঘটনাকে ঘিরে চাঞ্চল্য কোচবিহারের ২ নম্বর ব্লকের পুণ্ডিবাড়ির চন্দনচুরা গ্রামে। চন্দন দে নামে ওই বিজেপি কর্মী আশঙ্কাজনক অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি। ঘটনায় স্থানীয় কাঠের ব্যবসায়ী বাপি রায়ের বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠেছে।

 

জানা গিয়েছে, বাপি ও চন্দন প্রতিবেশী। পেশায় কাঠের ব্যবসায়ী বাপি কয়েকদিন ধরেই একটি পিস্তল নিয়ে এলাকায় ঘুরে বেড়াচ্ছিল। কেউ কিছু বললে, তাঁকে পিস্তল বার করে ভয়ও দেখাচ্ছিল সে। বুধবার সকালে পুরনো কোনও বিষয় নিয়েই চন্দনের সঙ্গে বচসা হয় বাপির। অভিযোগ, বচসা চলাকালীন আচমকাই বাপি পকেট থেকে পিস্তল বার করে চন্দনকে গুলি করে দেয়।

ভাইয়ের দেহ আগলে বসে দিদি! নদিয়ার রানাঘাটে মর্মান্তিক ঘটনা

রক্তাক্ত অবস্থায় মাটিতে লুটিয়ে পড়ে চন্দন। স্থানীয়রাই তাঁকে উদ্ধার করে কোচবিহারের একটি হাসপাতালে ভর্তি করান। ঘটনার পর থেকে পলাতক চন্দন। তবে ঠিক কী কারণে গুলি, তা এখনও স্পষ্ট নয়। পুলিস তদন্ত করে দেখছে।