close

News WrapGet Handpicked Stories from our editors directly to your mailbox

১২ জানুয়ারি বিয়ে ছিল, তার আগেই বাড়ির শৌচালয়ে উদ্ধার সিভিল ইঞ্জিনিয়ারের ঝুলন্ত দেহ

প্রতিবেশীরা জানাচ্ছেন, স্থানীয় এক তরুণীর সঙ্গে দীর্ঘদিনের সম্পর্ক ছিল শুভঙ্করের। তাঁদের বিয়ে করার কথাও ছিল। 

Updated: Aug 20, 2019, 11:10 AM IST
১২ জানুয়ারি বিয়ে ছিল, তার আগেই বাড়ির শৌচালয়ে উদ্ধার সিভিল ইঞ্জিনিয়ারের ঝুলন্ত দেহ

নিজস্ব প্রতিবেদন:  গলায় ফাঁস লাগানো অবস্থায় সিভিল ইঞ্জিনিয়ারের দেহ উদ্ধার বাড়ির বাথরুম থেকে। ঘটনাকে ঘিরে চাঞ্চল্য দক্ষিণ ২৪ পরগনার বিষ্ণুপুরের রামনগর পুরকাইত পাড়া এলাকায়। মৃতের নাম শুভঙ্কর পুরকাইত(২৬)। মঙ্গলবার সকালে নিজেরই বাড়ির দোতলার বাথরুম থেকে তাঁর দেহ উদ্ধার হয়।

 

প্রতিবেশীরা জানাচ্ছেন, স্থানীয় এক তরুণীর সঙ্গে দীর্ঘদিনের সম্পর্ক ছিল শুভঙ্করের। তাঁদের বিয়ে করার কথাও ছিল। কিন্তু শুভঙ্করের মা কোনওভাবেই এই সম্পর্ক মেনে নেননি। তা নিয়ে পরিবারে অশান্তি লেগেই থাকত। মানসিক অবসাদেই শুভঙ্কর আত্মঘাতী হয়েছেন বলে দাবি প্রতিবেশীদের।

মৃতদেহের চোখ উধাওকাণ্ডে আরজি কর হাসপাতালে তৈরি হল ৩ সদস্যের তদন্ত কমিটি

যদিও শুভঙ্কের দিদির দাবি, ১২ জানুয়ারি ওই তরুণীর সঙ্গেই বিয়ে হওয়ার কথা ছিল শুভঙ্করের। সব ঠিকও হয়ে গিয়েছিল। তারপরও কেন ভাই এমন কাজ করল, তা বুঝতে পারছেন না দিদিও। তাঁর দাবি, নিশ্চয়ই তরুণীর সঙ্গেই কোনও অশান্তি হয়ে থাকতে পারে।

ছেলেকে হারানোর পর এদিন কথা বলার মতো পরিস্থিতিতে ছিলেন না মা রাধা পুরকাইত। খবর পেয়ে বাড়ি থেকে দেহ উদ্ধার করে নিয়ে যায় বিষ্ণুপুর থানার পুলিস। দেহ ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে।