জল ছাড়া নিয়ে ফের রাজ্য-DVC চাপানউতোর

Updated By: Jul 24, 2017, 07:19 PM IST
জল ছাড়া নিয়ে ফের রাজ্য-DVC চাপানউতোর

ওয়েব ডেস্ক: জল ছাড়া নিয়ে ফের রাজ্য-DVC চাপানউতোর। ১০ হাজার কিউসেকের বেশি জল ছাড়া যাবে না। চিঠি দিয়ে DVC-কে জানিয়ে দিল রাজ্য সেচ দফতর। যদিও DVC-র দাবি, তারা বিকেল পর্যন্ত রাজ্যের কোনও চিঠি পায়নি। এখনও পর্যন্ত মোট ৩৯ হাজার কিউসেক জল ছেড়েছে DVC.

একটানা ভারী বৃষ্টি। জলমগ্ন রাজ্যের একাধিক জেলা। ফুঁসছে দক্ষিণবঙ্গের নদীগুলি। এই পরিস্থিতিতে ফের জল ছাড়া নিয়ে রাজ্য-DVC চাপানউতোর। গাঙ্গেয় পশ্চিমবঙ্গে টানা বৃষ্টি। অন্যদিকে ঝাড়খণ্ডে অতিভারী বৃষ্টির ফলে জল বেড়েছে ক্যাচমেন্ট এরিয়ায়।

ঝাড়খণ্ডে ভারী বৃষ্টির ফলে চাপ বাড়ে মাইথন এবং পাঞ্চেত জলাধারে। ২ জলাধারের মিলিত জল পৌছয় দুর্গাপুর ব্যারাজে। দুর্গাপুর থেকে ছাড়া জল ভাসিয়ে দেয় দুই বর্ধমান, হুগলি এবং হাওড়ার নীচু এলাকা। টানা বৃষ্টির ফলে জল ছেড়েছে DVC. সোমবার বিকেল পর্যন্ত, মাইথন এবং পাঞ্চেত ২৬ হাজার কিউসেক জল ছেড়েছে। সেই জলের সঙ্গে আসানসোল ও দুর্গাপুর শিল্পাঞ্চলে ভারী বৃষ্টির জল জমেছে। সব মিলিয়ে সোমবার বিকেল পর্যন্ত, দুর্গাপুর ব্যারাজ মোট ৩৯ হাজার কিউসেক জল ছেড়েছে।

টানা বৃষ্টিতে এমনিতেই ভাসছে দক্ষিণবঙ্গ। তার ওপর DVC জল ছাড়ায় বড় বিপদের আশঙ্কা করছে রাজ্য। জল ছাড়া নিয়ে সোমবার দুপুরেই DVC-কে চিঠি দেয় সেচ দফতর।

চিঠিতে স্পষ্ট করা হয়েছে, রাজ্যের ১৮ হাজার কিউসেকের বেশি জল বহন করার ক্ষমতা নেই। তাই ১০ হাজার কিউসেকের বেশি জল ছাড়া যাবে না। মুখ্যমন্ত্রীও অভিযোগ করছেন, DVC না জানিয়ে জল ছাড়াতেই বেশ কয়েকটি এলাকা জলমগ্ন হয়েছে। একদিকে ঝাড়খণ্ডে ভারী বৃষ্টিতে দামোদরের উচ্চ অববাহিকায় জল বাড়ছে।

টানা বৃষ্টিতে জল বাড়ছে দামোদরের নিম্ন অববাহিকাতেও। ফুঁসছে দামোদর এবং বাঁকা নদী। পূর্ব বর্ধমানের রায়না-জামালপুরে প্লাবনের আশঙ্কা। অতিবৃষ্টিতে পরিস্থিতি জটিল আরামবাগ-গোঘাটেও। আরামবাগ-গড়বেতা সড়কের ওপর দিয়ে বইছে আমোদর নদীর জল। সাতবেড়িয়ার কাছে ভেঙে পড়েছে একটি সেতু।