পড়শিদের সঙ্গে মেলামেশায় আপত্তি, কথা না শোনায় কিশোরী মেয়েকে খুন বাবার!

 প্রতিবেশীদের সঙ্গে মেলামেশা পছন্দ ছিল না বাবার। বারণ করেছিলেন। কিন্তু সেকথা না মানায় শ্বাসরোধ করে মেয়েকে খুন! খুনের অভিযোগ উঠেছে বাবা ও দাদার বিরুদ্ধে। অভিযুক্ত বাবা ও দাদাকে গ্রেফতার করেছে পুলিস।

Updated By: Aug 12, 2020, 01:45 PM IST
পড়শিদের সঙ্গে মেলামেশায় আপত্তি, কথা না শোনায় কিশোরী মেয়েকে খুন বাবার!
নিজস্ব চিত্র

নিজস্ব প্রতিবেদন : প্রতিবেশীদের সঙ্গে মেলামেশা পছন্দ ছিল না বাবার। বারণ করেছিলেন। কিন্তু সেকথা না মানায় শ্বাসরোধ করে মেয়েকে খুন! খুনের অভিযোগ উঠেছে বাবা ও দাদার বিরুদ্ধে। অভিযুক্ত বাবা ও দাদাকে গ্রেফতার করেছে পুলিস।

গতকাল রাতে প্রতিবেশীরা চিৎকার চেঁচামেচির আওয়াজ শুনতে পান। প্রতিবেশীদের অভিযোগ কিশোরী মেয়ে ফুল কুমারীকে (১৮) মারধোর করত তার পরিবার। প্রাথমিক তদন্তের পর চন্দননগর কমিশনারেটের পুলিস জানিয়েছে, ওই কিশোরীর কোনও যুবকের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক ছিল। যা মানতে পারেনি তার পরিবার। সম্ভবত সেই কারণেই মারধোর করা হয়।

অভিযোগ, গতকাল রাতে ওই কিশোরীকে দাদা ও এলাকার লোকজন অচৈতন্য অবস্থায় শ্রীরামপুর ওয়ালস হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখানে চিকিৎসক ওই কিশোরীকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। জানান, আগেই মৃত্যু হয়েছে তার। ওই কিশোরীর গলায় ফাঁসের চিহ্ন রয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে জানা গিয়েছে। খুনের অভিযোগের ভিত্তিতে বাবা জয়রাম রায় ও দাদা সুবোধ রায়কে গ্রেফতার করেছে শ্রীরামপুর থানায় পুলিস। ঘটনার তদন্ত শুরু হয়েছে। জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে প্রতিবেশীদের।

এই ঘটনায় স্থানীয় প্রাক্তন কাউন্সিলর বলেন, দিন দশেক আগে নতুন মাহেশ এলাকায় আসেন রিষড়া গ্লাস কারখানার কর্মী জয়রাম। মেয়ে ফুল কুমারী খুবই মিশুকে ছিল। কিন্তু পরিবারের বাকিরা এলাকার লোকজনের সঙ্গে খুব একটা মিশত না। মেয়ে বাইরের কারও সঙ্গে কথা বললে অশান্তি করত।

আরও পড়ুন, 'আগে ৩ লাখ দিন, তারপর ভর্তি', শেষে অ্যাম্বুল্যান্সের মধ্য়েই পড়ে থেকে মৃত্যু করোনা রোগীর