বঙ্গোপসাগরে নিম্নচাপ! দুর্যোগের পূর্বাভাস দক্ষিণবঙ্গে, রাজ্যজুড়ে জারি সতর্কতা

দীঘা, মন্দারমনি, সাগরদ্বীপ-সহ সম সমুদ্রসৈকতে জারি সর্তকতা। উপকূলের জেলাগুলিতে ৫৫ কিলোমিটার পর্যন্ত ঝড়ো হাওয়া বইতে পারে। 

Reported By: অয়ন ঘোষাল | Updated By: Aug 25, 2020, 10:51 AM IST
বঙ্গোপসাগরে নিম্নচাপ! দুর্যোগের পূর্বাভাস দক্ষিণবঙ্গে, রাজ্যজুড়ে জারি সতর্কতা
নিজস্ব চিত্র

নিজস্ব প্রতিবেদন: আগামী কয়েকদিন দুর্যোগ জারি থাকবে দক্ষিণবঙ্গে। মঙ্গলবার দুপুরের পর থেকেই বৃষ্টি শুরু হবে। আবহাওয়া দফতর সূত্রে খবর সন্ধের পর থেকেই ঝড়ো হাওয়া বইতে পারে।  ভারী বৃষ্টি চলবে বৃহস্পতিবার পর্যন্ত। বৃহস্পতিবার পর্যন্ত মৎস্যজীবীদের সমুদ্রে যাওয়ায় নিষেধাজ্ঞা রয়েছে। 

দীঘা, মন্দারমনি, সাগরদ্বীপ-সহ সম সমুদ্রসৈকতে জারি সর্তকতা। উপকূলের জেলাগুলিতে ৫৫ কিলোমিটার পর্যন্ত ঝড়ো হাওয়া বইতে পারে। ৪০ থেকে ৫০ কিলোমিটার পর্যন্ত ঝড়ো হাওয়া বইতে পারে কলকাতা, হাওড়া, হুগলিতে। দক্ষিণবঙ্গের বাকি জেলাগুলিতে ৩০ থেকে ৪০ কিলোমিটার গতিবেগে ঝড়ো হাওয়া বইবে। 

আরও পড়ুন:  'আজ আমার জন্মদিন' ভেন্টিলেশনের নল খুলতেই জানালেন রোগী! করোনা ওয়ার্ডেই পালন হল বিশেষ দিন

উত্তর বঙ্গোপসাগরে তৈরি হয়েছে নিম্নচাপ। আগামী ৪৮ ঘণ্টায় তা আরও শক্তি সঞ্চয় করবে। মূলত গাঙ্গেয় পশ্চিমবঙ্গ উড়িষ্যা উপকূলের সাগরে এই নিম্নচাপের অবস্থান। মঙ্গলবার দক্ষিণবঙ্গের সব জেলাতেই  বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। অতিভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা দক্ষিণ ২৪ পরগনা, পূর্ব ও পশ্চিম মেদিনীপুর এবং ঝাড়গ্রামে।  দক্ষিণবঙ্গের বাকি সব জেলাতে হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টি হবে। দু-এক পশলা ভারী বৃষ্টির সর্তকতাও রয়েছে। সঙ্গে বজ্রবিদ্যুৎ-সহ বৃষ্টি।

কাল থেকে ঝোড়ো হাওয়ার দাপট বাড়বে পশ্চিমের জেলাগুলিতেও। অতিভারী বৃষ্টির সর্তকতা রয়েছে পুরুলিয়া, পশ্চিম বর্ধমান, পশ্চিম মেদিনীপুর, ঝাড়গ্রাম। দক্ষিণবঙ্গের বাকি জেলাতেও হালকা মাঝারি বৃষ্টি দু-এক পশলা ভারী বৃষ্টি হতে পারে। বৃহস্পতিবারে পশ্চিমের জেলাগুলিতে ভারী বৃষ্টি চলবে। বাঁকুড়া, পুরুলিয়া, পূর্ব ও পশ্চিম মেদিনীপুর এবং ঝাড়গ্রামে ভারী বৃষ্টির সর্তকতা থাকছে। 

দক্ষিণবঙ্গের বাকি জেলাগুলিতে বৃষ্টির পরিমাণ কমবে। উত্তরবঙ্গে বুধবারে দার্জিলিং-সহ উপরের দিকের পাঁচ জেলায় দু-এক পশলা ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা। কলকাতায় মেঘলা আকাশ থাকবে। দফায় দফায় বৃষ্টির পূর্বাভাস। সকালে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ২৬.২ ডিগ্রি। গতকাল সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩২.১। বাতাসে জলীয় বাষ্পের পরিমাণ ৭৮ থেকে ৯৭ শতাংশ । গত ২৪ ঘণ্টায় কলকাতায় বৃষ্টিপাতের পরিমাণ ২৯.৬ মিমি।