close

News WrapGet Handpicked Stories from our editors directly to your mailbox

গণনা কেন্দ্রে সন্ত্রাসের অভিযোগ তুলে মেদিনীপুরের জেলা শাসককে চিঠি দিলেন দিলীপ ঘোষ

মেদিনীপুরের জেলা শাসককে তিনি চিঠি দিয়েছেন কারণ লোকসভা ভোটে তিনি যে মেদিনীপুর কেন্দ্রের বিজেপি প্রার্থী।

Updated: May 20, 2019, 08:13 PM IST
গণনা কেন্দ্রে সন্ত্রাসের অভিযোগ তুলে মেদিনীপুরের জেলা শাসককে চিঠি দিলেন দিলীপ ঘোষ

নিজস্ব প্রতিবেদন: গণনা কেন্দ্রে কারচুপি যেন না হয়। কড়া ভাষায় মেদিনীপুরের জেলা শাসককে চিঠি দিলেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। পঞ্চায়েতের গণনা কেন্দ্রের ঘটনাকে উল্লেখ করে এ ব্যাপারে তাঁর সাফ কথা, "কোনওভাবেই গণনা কেন্দ্রে যেন অশান্তি বা ছাপ্পা ভোটের ঘটনা না ঘটে।" সেই সঙ্গে দলের রাজ্য সভাপতি হিসেবে দলের সমস্ত প্রার্থীকে কড়া নির্দেশ দিয়েছেন, গণনা কেন্দ্রে যাঁরা যাবেন তাঁদের এখন থেকেই তালিম দেওয়া হোক। পাশাপাশি তৃণমূল কংগ্রেস যাতে গণনা কেন্দ্রের ভিতরে এমনকী বাইরে কোনও রকম ঝামেলা করতে না পারে সে ব্যাপারে এখন থেকেই প্রয়োজনীয় উদ্যোগ নিতে নির্দেশ দেন।

পঞ্চায়েত ভোটে গণনাকেন্দ্রের ভিতরে তৃণমূল কর্মীদের ছাপ্পা ভোট দেওয়ার অভিযোগ তুলেছিল বিজেপি। তাই এবার লোকসভা ভোটে দলের কর্মীদের আলাদা করে সতর্ক করে দিয়েছেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। সকল প্রার্থী এবং জেলা সভাপতিদের কাছে নির্দেশ দিয়েছেন তিনি। আর মেদিনীপুরের জেলা শাসককে তিনি চিঠি দিয়েছেন কারণ লোকসভা ভোটে তিনি যে মেদিনীপুর কেন্দ্রের বিজেপি প্রার্থী।
মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও এক জনসভায় অভিযোগ করেছিলেন গণনা কেন্দ্রে ব্যপক কারচুপি করতে পারে বিজেপি। তাই রাত জেগে তৃণমূলকর্মীদের পাশাপাশি গ্রামবাসীদেরও পাহারা দেওয়ার বার্তা দেন তিনি।

আরও পড়ুন - বুথ ফেরত সমীক্ষা ভুল, জিতবে জোটই, মমতাকে ফোন করে আশ্বাস দিলেন অখিলেশ

রবিবারই শেষ হয়েছে সাত দফায় লোকসভার ভোটগ্রহণ। ভোট শেষ হতেই বুথ ফেরত সমীক্ষায় ফের মোদী ঝড়ের ইঙ্গিত মিলেছে গোটা দেশজুড়ে। বাংলাতেও তাঁর আঁচ পড়ার সম্ভাবনা রয়েছে। বুথ ফেরত সমীক্ষায় বাংলাতেও বিজেপির আসন সংখ্যা ১৫-র আশপাশে পৌঁছানোর ইঙ্গিত দেওয়া হয়েছে। বাংলায় গেরুয়া ঝড়ে তৃণমূলের শক্তি কমার ইঙ্গিত মিলছে বুথ ফেরত সমীক্ষায়।

২০১৪ সালে লোকসভা নির্বাচনে পশ্চিমবঙ্গের ৪২টি আসনের মধ্যে অধিকাংশ আসন গিয়েছিল তৃণমূল কংগ্রেসের দখলে। তারা পেয়েছিল ৩৪টি আসন। বাংলায় খাতা খুলেছিল বিজেপি। তাদের দখলে গিয়েছিল ২টি আসন। এছাড়া কংগ্রেসের দখলে চারটি আসন ছিল। সিপিএম পেয়েছিল ২টি আসন। কিন্তু এবার ২০১৯ সালে পাঁচটি বুথ ফেরত সমীক্ষার গড় যদি করা যায়, তাহলে দেখা যাচ্ছে বাংলায় তৃণমূল পেতে পারে ২৪টি আসন। বিজেপি পেতে পারে ১৭টি আসন। কংগ্রেসের দখলে যেতে পারে একটিমাত্র আসন। সিপিএম কোনও আসন পাবে না বলেই বুথ সমীক্ষার গড় করলে ইঙ্গিত পাওয়া যাচ্ছে।