ভরসন্ধেয় দক্ষিণেশ্বর স্কাই ওয়াকে স্ত্রীকে কোপাল স্বামী

বনিবনা নেই, চলছে ডিভোর্সের মামলা। এর মধ্যেই  সুযোগ পেয়ে স্ত্রীকে ছুরি দিয়ে এলোপাথাড়ি কোপাল স্বামী।  সোমবার বিকেলে দক্ষিণেশ্বর স্কাইওয়াকে ভয়ঙ্কর ওই ঘটনায় আতঙ্কিত হয়ে পড়েন পথচলতি লোকজন। গ্রেফতার অভিযুক্ত স্বামী সমীর চৌধুরী।

Updated By: Jan 20, 2020, 08:33 PM IST
ভরসন্ধেয় দক্ষিণেশ্বর স্কাই ওয়াকে স্ত্রীকে কোপাল স্বামী

নিজস্ব প্রতিবেদন: বনিবনা নেই, চলছে ডিভোর্সের মামলা। এর মধ্যেই  সুযোগ পেয়ে স্ত্রীকে ছুরি দিয়ে এলোপাথাড়ি কোপাল স্বামী।  সোমবার বিকেলে দক্ষিণেশ্বর স্কাইওয়াকে ভয়ঙ্কর ওই ঘটনায় আতঙ্কিত হয়ে পড়েন পথচলতি লোকজন। গ্রেফতার অভিযুক্ত স্বামী সমীর চৌধুরী।

আরও পড়ুন-কৃষকদের থেকে দেড়গুণ দামে জমি কিনবে সরকার, জমিজট কাটল লুধিয়ানা টু ডানকুনি ফ্রেট করিডরের  

বারুইপুর মুক্তি সংঘ এলাকার বাসিন্দা সমীর চৌধুরীর বিয়ে হয়েছিল শুভশ্রী সরকারের সঙ্গে। বনিবনা না হওয়ায় ৪ বছর আগে ডিভোর্সের মামলা উঠেছিল আদালতে। সোমবার বন্ধুদের সঙ্গে দক্ষিণেশ্বরে পুজো দিতে আসেন শুভশ্রী।  তাঁকে ফলো করে এসে দক্ষিণেশ্বরে এস্কেলেটরের সিঁডির কাছে শুভশ্রীকে ঘিরে ধরে সমীর। তারপরেই  প্রথমে তার মুখে ছুরির কোপ বসায় সমীর। এরপর তার পিঠে এলোপাথাড়ি কোপাতে থাকে সে।

প্রত্যক্ষদর্শী নির্মলেন্দু মুখোপাধ্যায় জি ২৪ ঘণ্টাকে বলেন, একটি লোক এসে প্রথমে মেয়েটির মুখে ছুরি মারে। আঘাত পেয়ে সে সিঁড়িতে বসে পড়লে তার পিঠে ছুরির কোপ বসায় লোকটি।  পরে সিকিউরিটির লোকজন এসে তাকে ধরে ফেলে। সিকিউরিটি না এলে ঘটনাস্থলেই শেষ হয়ে যেত মেয়েটি।

আরও পড়ুন-এখনই বিদায় নিচ্ছে না শীত, ফের নামবে পারদ, বাড়বে ঠান্ডা

 আচমকা এই ঘটনায় আতঙ্কিত হয়ে পড়েন লোকজন। সমীর আত্মহত্যার চেষ্টা করলে তাকে ধরে বেলঘড়িয়া থানার পুলিসের হাতে তুলে দেয় জনতা। পাশাপাশি শুভশ্রীকে প্রথম সাগর দত্ত হাসপাতালে ও পরে তাঁকে আরজি কর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।