'ঘরোয়া মিটিং করেছিলাম, বিষয়টা এত বড় হবে বুঝিনি', সুব্রত বক্সির ফোনে সুর নরম গৌতমের

গৌতম দেব জানিয়েছেন, 'যে দলে থাকি তার খারাপ কোনওদিন করিনি। দাদা যে উ উপদেশ দিয়েছেন,তা মেনে চলব। আবেগের বহিঃপ্রকাশ হয়েছিল'

Updated By: Jan 16, 2021, 02:52 PM IST
'ঘরোয়া মিটিং করেছিলাম, বিষয়টা এত বড় হবে বুঝিনি', সুব্রত বক্সির ফোনে সুর নরম গৌতমের

নিজস্ব প্রতিবেদন: পর্যটন মন্ত্রী গৌতম দেবের ক্ষোভ শোনা গিয়েছিল। তবে এক ফোনেই নরম তাঁর সুর। সুব্রত বক্সির ফোন পেয়ে ফের ট্র্য়াকে ফিরেছেন বেসুরো গৌতম দেব। গতকালই তৃণমূল মন্ত্রী গৌতম দেব নাম না করে দলেরই আরেক মন্ত্রী রবীন্দ্রনাথ ঘোষের বিরুদ্ধে সরব হন। 

আরও পড়ুন:  Vaccination তালিকায় Sourav-র নামে বিতর্ক! চাপে পড়ে পিছু হঠলেন বিধায়ক

এরপরেই বেসুরো নেতাকে ফোন করেন সুব্রত বক্সি। সুব্রত বক্সির ফোনের পরেই সুর নরম করেন বেসুরো নেতা। তিনি জানিয়েছেন, 'যে দলে থাকি তার খারাপ কোনওদিন করিনি। দাদা যে উ উপদেশ দিয়েছেন,তা মেনে চলব। আবেগের বহিঃপ্রকাশ হয়েছিল'

তিনি আরও বলেন "গতকাল দলের সভাপতি সুব্রত বক্সির সঙ্গে আমার কথা হয়েছে। উনি রাজনীতিতে আমার দাদার মতো। কিছু কিছু আলোচনা হয়েছে। আজ সকালবেলা দিদিমনির সঙ্গেও আমার কথা হয়েছে।  আমার অভিভাবক, উনি পরামর্শ দিয়েছেন। দলীয় কর্মীদের নিয়ে সাধারণ ঘরোয়া একটা  মিটিং করেছিলাম। বিষয়টা এত বড় হবে বুঝিনি। 

আরও পড়ুন: ভাঙনে অস্থির তূণমূল! প্রসূনকে তড়িঘড়ি ফোন সৌগতর, 'সুরে' ফিরলেন হাওড়ার সাংসদ

গতকাল খানিক অন্যসুর শোনা গিয়েছিল গৌতম দেবের গলায়। বৃহস্পতিবার একটি রাস্তার উদ্বোধনে এসে গৌতম দেব (goutam dev)তোপ দেগেছিলেন উত্তরবঙ্গ উন্নয়ন পর্ষদের (uttarbanga development corporation)প্রতি। উত্তরবঙ্গ উন্নয়ন পর্ষদের প্রতি অসহযোগিতার অভিযোগ এনে তিনি বলেন, বিভিন্ন বিষয় নিয়ে একাধিক বার ওই দফতরে চিঠি লিখেও কোনও কাজ হয়নি। যদিও বিষয়টি নিয়ে পরে তাঁকে প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন, 'আবেগতাড়িত' হয়ে তিনি কথাগুলি বলে ফেলেছেন। 

তবে গতকালই তিনি মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জীর (mamata banerjee) ভূয়সী প্রশংসা করে বলেন, মুখ্যমন্ত্রী যে ভাবে যত্ন করে ও গুরুত্ব দিয়ে উত্তরবঙ্গের উন্নয়নের বিষয়গুলি দেখেন, সেজন্য তাঁর প্রতি তিনি কৃতজ্ঞ।