অপহরণ করে খুন? কাটিহারে মিলল মালদহের TMC নেতার দেহ

পাঁচদিন ধরে নিখোঁজ ছিলেন তিনি।

Updated By: Jul 24, 2021, 01:45 PM IST
অপহরণ করে খুন? কাটিহারে মিলল মালদহের TMC নেতার দেহ

নিজস্ব প্রতিবেদন: অপহরণ করে খুন? একুশে জুলাইয়ের আগে নিখোঁজ হয়ে গিয়েছিলেন। ৫ দিন পর মালদহের তৃণমূল নেতার ঝুলন্ত দেহ মিলল বিহারের কাটিহারে। এদিন ভোরে দেহ আনা হল গ্রামে। মৃত্যুর কারণ স্পষ্ট নয় এখনও।

স্থানীয় সূত্রে খবর, হরিশ্চন্দ্রপুরের ভালুকা পঞ্চায়েতের হাতিছাপা গ্রামের বাসিন্দা ছিলেন তৃণমূল নেতা আনেসুর রহমান। পেশায় তিনি ব্যবসায়ী, ইঁটভাটার মালিক। পরিবারের লোকেরা জানিয়েছেন, রবিবার সকালে ইঁটভাটায় যাচ্ছি বলে বাড়ি থেকে বেরিয়েছিলেন আনেসুর। আর বাড়ি ফেরেননি। পরিবারের লোক ও পাড়া-প্রতিবেশীরা বিভিন্ন জায়গায় খোঁজ-খবর চালিয়েও তাঁর সন্ধান পাননি। শেষপর্যন্ত অভিযোগ দায়ের করা হয় ভালুকা ফাঁড়ি ও হরিশ্চন্দ্রপুর থানায়।

আরও পড়ুন: মহিলাদের ভ্যাকসিনের লাইনে পুরুষরা! ধুন্ধুমারকাণ্ড শিলিগুড়িতে

জানা গিয়েছে, বিহারের কাটিহার জেলার বলরামপুর ও বারসই স্টেশনের মাঝে রেললাইনের ধারে একটি গাছে ওই তৃণমূল নেতার ঝুলন্ত দেহ দেখতে পাওয়া যায়। কিন্তু তাঁর পরিচয় জানতেন না কেউ। দেহটি উদ্ধার করে যথারীতি ময়নাতদন্তের জন্য কাটিহার হাসপাতালের পাঠিয়ে দেয় পুলিস। ময়নাতদন্তের পর এদিন ভোরে দেহ আনা হয় মালদহের হরিশ্চন্দ্রপুরের ভালুকা পঞ্চায়েতের হাতিছাপা গ্রামে। 

আরও পড়ুন: Weather Update: রাত-ভোর বৃষ্টি, ফের নিম্নচাপ! বজ্রবিদ্যুৎ-সহ বৃষ্টির পূর্বাভাস রাজ্যে

ঘটনাটি কীভাবে জানা গেল? মৃতের পরিবারের লোকেরা জানিয়েছেন, গতকাল অর্থাত্‍ শুক্রবার সোশ্যাল মিডিয়া থেকে জানতে পারেন, বিহারের কাটিহারে এক অজ্ঞাতপরিচয় ব্যক্তির দেহ উদ্ধার হয়েছে। এরপর থানায় যোগাযোগ করা হয়। তখন হাসপাতালের দেহের ময়নাতদন্ত চলছে। কাটিহারে চলে যান আনেসুর রহমানের পরিবারের লোকেরা। তাঁদের দাবি, আনেসুরকে অপহরণ করে খুন করা হয়েছে। ঘটনার যথাযথ তদন্তের দাবি উঠেছে।