থ্যালাসেমিয়া আক্রান্ত বন্ধনের পাশে মুখ্যমন্ত্রী, দরকার আরও সাহায্য

যদি মেলে একটু সাহায্য...

Updated By: Sep 27, 2020, 12:12 AM IST
থ্যালাসেমিয়া আক্রান্ত বন্ধনের পাশে মুখ্যমন্ত্রী, দরকার আরও সাহায্য

নিজস্ব প্রতিবেদন: বয়স মাত্র ৩। বাড়ি বাঁকুড়ার ওন্দার কাঁটাবাড়ি। ৬ মাসেই ধরা পড়েছিল থ্যালাসেমিয়া। ২৮ দিন অন্তর লাগে রক্ত। মা-বাবা চেয়েচিন্তে টাকা জোগাড় করে ছেলেকে নিয়ে গিয়েছিলেন চেন্নাই। সেখানকার হাসপাতাল জানায়, বোন ম্যারো ট্রান্সপ্ল্যান্টেশন (অস্থিমজ্জা প্রতিস্থাপন) করতে হবে। মুখ্যমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিল থেকে মিলেছে ১ লক্ষ টাকা। তবে তা চিকিৎসার জন্য অপ্রতুল।      

বন্ধন দে-র বয়স যখন ৬ মাস, তখন ধরা পড়ে থ্যালাসেমিয়া। ২৮ দিন অন্তর রক্তের দরকার শিশুটির। চেন্নাইয়ের বেসরকারি হাসপাতালের চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, বন্ধনের অস্থিমজ্জা প্রতিস্থাপন করাতে হবে। খরচ ২৫ লক্ষ টাকা। মাথায় হাত বন্ধনের পরিজনদের। কোথা থেকে জোগাড় হবে বিপুল টাকা? বন্ধনের বাবা নিতাই দে বিষ্ণুপুর বাজারে আলু বিক্রি করেন। আরও দুই মেয়ে রয়েছে তাঁর। অর্থের জোগাড়ে নবান্নের দ্বারস্থ হন নিতাই দে। মেলে সহযোগিতা। মুখ্যমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিল থেকে পেয়েছেন ১ লক্ষ। ওই টাকা চলে যাবে চেন্নাইয়ের হাসপাতালে। 

কিন্তু বাকি টাকা আসবে কোথা থেকে? সে নিয়ে চিন্তায় বন্ধনের মা-বাবা। শিশুটিকে বাঁচাতে দোরে দোরে ঘুরছেন তাঁরা। যদি মেলে একটু সাহায্য...

আরও পড়ুন- মানসিকভাবে সমস্যায় আছেন, চায়ে চুমুক দিতে দিতে জেনে নেব: অনুপম হাজরা