মানসিকভাবে সমস্যায় আছেন, চায়ে চুমুক দিতে দিতে জেনে নেব: অনুপম হাজরা

একুশের আগে অন্তর্কলহ দলের ক্ষতি করতে পারে, মত অনুপম হাজরার। 

Updated By: Sep 26, 2020, 11:56 PM IST
মানসিকভাবে সমস্যায় আছেন, চায়ে চুমুক দিতে দিতে জেনে নেব: অনুপম হাজরা

নিজস্ব প্রতিবেদন: বিজেপির জাতীয় সম্পাদকের পদ খুঁইয়ে 'তৃণমূল থেকে আসা নেতাদের' নিশানা করেছেন রাহুল সিনহা। তাঁর জায়গায় জাতীয় সম্পাদক হয়েছেন অনুপম হাজরা। স্বাভাবিকভাবেই নাম না করলেও রাহুল নিশানায় অনুপমই। এনিয়ে বেশ সংযত প্রতিক্রিয়াই দিয়েছেন প্রাক্তন সাংসদ। তাঁর বক্তব্য, রাহুল সিনহার সঙ্গে ব্যক্তিগত সম্পর্ক ভালো। কলকাতায় গিয়ে চা খেতে খেতেই সমস্যা মিটিয়ে ফেলবেন। একুশের আগে অন্তর্কলহ দলের ক্ষতি করতে পারে।                  

অনুপম বলেন,''রাহুল দা, যা বলেছেন তা নিজের কানে শুনিনি। তাই না জেনে বলাটা ঠিক হবে না। ওঁর সঙ্গে ব্যক্তিগত সম্পর্ক ভালো। আর বিজেপি একটা পরিবার। এখানে সিদ্ধান্ত নেন পরিবারের কর্তা,সর্বভারতীয় সভাপতি। কেন্দ্রীয়স্তরে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।'' পদ হারানোয় রাহুল সিনহা সাময়িক ক্ষোভ থেকে এমন কথা বলছেন বলেও ইঙ্গিত করেছেন অনুপম হাজরা। তাঁর কথায়,''জীবনের রেখাচিত্র কারও সমান থাকে না। উত্থান-পতন হয়। মানসিকভাবে সমস্যায় আছেন। কলকাতায় গিয়ে সেটা চায়ে চুমুক দিতে দিতে জেনে নেব। আমাদের একটাই লক্ষ্য, শ্যামাপ্রসাদ মুখোপাধ্যায়ের জন্মস্থানে বিজেপিকে ক্ষমতায় আনা। বিবাদ ভুলে সবাই মিলে কাজ করে লক্ষ্য পূরণ করবই।''

তার আগে এদিন রাহুল সিনহা বলেন, ''৪০ বছর ধরে বিজেপির সেবা করেছি। সৈনিক থেকেছি। জন্মলগ্ন থেকে বিজেপির সেবা করার পুরস্কার, তৃণমূল কংগ্রেসের নেতা আসছেন, তাই আমাকে সরতে হবে। এর চেয়ে বড় দুর্ভাগ্য আর কিছু হতে পারে না! পার্টি যে পুরস্কার দিল, তার পক্ষে বা বিপক্ষে কিছু বলতে চাই না। যা বলার ১০ থেকে ১২ দিনের মধ্যে বলব। আমার ভবিষ্যত কর্মপন্থা ঠিক করব।''            

আরও পড়ুন- আর কত কাল ভারতকে বঞ্চিত রাখা হবে? রাষ্ট্রসঙ্ঘে আগ্রাসী প্রধানমন্ত্রী