স্কুলেই ৩ ছাত্রীকে যৌন নিগ্রহের অভিযোগে ধৃত স্কুলশিক্ষক

ধৃত মিন্টু  সেন কুমারগঞ্জ থানার ভৌর গ্রাম পঞ্চায়েতের ঝাড়া আদিবাসী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক।

Updated: Nov 20, 2018, 06:34 PM IST
স্কুলেই ৩ ছাত্রীকে যৌন নিগ্রহের অভিযোগে ধৃত স্কুলশিক্ষক

নিজস্ব প্রতিবেদন: স্কুলের টিফিনের সময় স্পেশাল ক্লাস নেওয়ার নাম করে একটি ঘরে নিয়ে গিয়ে তিন ছাত্রীকে যৌন নিগ্রহ করার অভিযোগে স্কুল শিক্ষককে গ্রেফতার করল পুলিস। ঘটনাটি ঘটেছে উত্তর দিনাজপুরের বালুরঘাটে। ধৃতকে এদিন বালুরঘাট আদালতে পেশ করা হলে বিচারক তাঁকে ১৪ দিনের জেল হেফাজতের নির্দেশ দেন।

আরও পড়ুন: সদ্যোজাতর মৃত্যু ঘিরে ধুন্ধুমার সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে!

ধৃত মিন্টু  সেন কুমারগঞ্জ থানার ভৌর গ্রাম পঞ্চায়েতের ঝাড়া আদিবাসী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক। অভিযোগ, সোমবার স্কুলের টিফিনের সময় তিন ছাত্রীকে একটি ফাঁকা ঘরে ডাকেন মিন্টু। সেখানে তাঁদের যৌন নিগ্রহ করা হয় বলে অভিযোগ।  স্কুল থেকে বাড়ি ফিরে পরিবারকে সেকথা জানায় ছাত্রীরা। পরে পরিবারের সদস্যরা গ্রামের লোক নিয়ে রাতেই থানায় অভিযোগ দায়ের করেন।

আরও পড়ুন: মালয়েশিয়ায় পুলিসের জাল থেকে বাংলার শ্রমিককে ফেরানোর উদ্যোগ

অভিযোগ জানতে পেরে কুমারগঞ্জ গ্রামেই চলে যান খোদ পুলিস সুপার  নরেন্দ্রনাথ ত্রিপাঠী। যৌন নির্যাতন চালানোর অভিযোগ মিন্টু সেনকে গ্রেফতার করে পুলিস। মঙ্গলবার সকালে তাঁকে আদালতে পেশ করা হয়। আদালতে নির্যাতিতা তিন ছাত্রীর গোপন জবানবন্দি নেওয়া হবে।